আইসিটি অধ্যায়-৬ ৫ : ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম

Posted by: | Published: Friday, November 30, 2018 | Categories:
ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায়-৬ ৫: ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (DBMS) থেকে ডেটাবেজের বিভিন্ন কুয়েরি,SQL কমান্ড ও অপারেটর নিয়ে আলোচনা করা হলো।


একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণী : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি 
অধ্যায়-৬ ৫: ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (DBMS)

কুয়েরি:  ডেটাবেজে সংরক্ষিত অসংখ্য তথ্য থেকে নির্দিষ্ট কোনো শর্ত সাপেক্ষে তথ্য খুঁজে বের করাকে বলা হয় কুয়েরি। কুয়েরির সাহায্যে নির্দিষ্ট ফিল্ডের ডেটা,নির্দিষ্ট গ্রুপের ডেটা নির্দিষ্ট শর্ত অনুসারে প্রদর্শন করা যায়।

বিভিন্ন প্রকার কুয়েরি:
সিলেক্ট কুয়েরি (Select Query): কোনো ডেটাবেজ টেবিলের ফিল্ড বা কলাম নির্বাচন করে যে কুয়েরি করা হয় তাকে সিলেক্ট কুয়েরি বলা হয়।

প্যারামিটার কুয়েরি (Parameter Query): ডায়লগ বক্সের তথ্য পূরণ করে যে কুয়েরি করা হয় তাকে প্যরামিটার কুয়েরি বলে।

ক্রসট্যাব কুয়েরি (Cross tab Query): শর্তারোপ করে কুয়েরিকৃত ফলাফল সামারি আকারে প্রদর্শনের জন্য যে কুয়েরি করা হয় তাকে, ক্রসট্যাব কুয়েরি বলে।

অ্যাকশন কুয়েরি (Action Query): কোনো কুয়েরি যখন ডেটাবেজের ডেটার মানের পরিবর্তন করে তাকে অ্যাকশন কুয়েরি বলে। যেমন-
Append Query- নতুন রেকর্ড যুক্ত করার জন্য ব্যবহার করা হয়।
Update Query -কোনো ডেটার পরির্বতনের জন্য ব্যবহার করা হয়।
Delete Query- ফলাফল টেবিল থেকে মুছে ফেলার জন্য ব্যবহার করা হয়।
Make Table Query- ফলাফল দিয়ে নতুন টেবিল তৈরির জন্য ব্যবহার করা হয়।

কুয়েরি ভাষা: যে ভাষার সাহায্যে কুয়েরি করা হয় তাকে কুয়েরি ভাষা বলে। ডেটা ম্যানিপুলেশনের উপর ভিত্তি করে তিন ধরণের কুয়েরি ভাষা আছে। যেমন-
1. QUEL (Query Language)
2. QBE (Query By Example)
3. SQL (Structured Query Language)

SQL(Structured Query Language): SQL এর পূর্ণ রূপ হলো Structured Query Language।SQLএকটি non-procedural বা Functional Language। কারণ SQL এ যে তথ্যাবলি দরকার কেবল তা বলে দিলেই হয়, কীভাবে কুয়েরি করা যাবে তা বলার দরকার হয় না।

SQL একটি শক্তিশালী ডেটা ডেফিনেশন ল্যাঙ্গুয়েজ অর্থাৎ SQL ব্যবহার করে ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে ডেটাবেজ ফাইল তৈরি, ডেটাবেজ ফাইল পরিবর্তন, ডেটাবেজ ফাইল ডিলিট, ডেটাবেজ অবজেক্ট(টেবিল, ভিউ, ইনডেক্স ইত্যাদি) তৈরি, পরিবর্তন এবং ডিলিট করা যায় এবং SQL একটি শক্তিশালী ডেটা মেনিপুলেশন ল্যাঙ্গুয়েজ অর্থাৎ SQL ব্যবহার করে ডেটাবেজ টেবিলে ডেটা ইনসার্ট, আপডেট ও ডিলিট করা যায়। তাছাড়া ইউজার একসেস নিয়ন্ত্রন করা যায়। এ কারণে SQL কে ডেটাবেজের জন্য একটি শক্তিশালী হাতিয়ার বলা হয়।

SQL বিভিন্ন স্টেটমেন্ট এর সমন্বয়ে গঠিত। যেমন-
1.Data Definition Language (DDL)
2.Data Manipulation Language (DML)
3.Data Query Language (DQL)
4.Data Control Language (DCL)

ডেটাবেজের বিভিন্ন SQL কমান্ড (DDL এবং DML)

DDL (Data Definition Language ) এর ব্যবহারঃ
একটি ডেটাবেজ তৈরির SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
CREATE DATABASE database_name;

টেবিল তৈরির SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
CREATE TABLE table_name
(
column_name_1 data_type(size),
column_name_2 data_type(size),
.............................
column_name_n data_type(size)
);

student_info নামের উপরের টেবিলটি তৈরির SQL কমান্ডঃ
CREATE TABLE student_info
(
Id number PRIMARY KEY,
Name text(20),
Section text(5),
GPA number,
City text(20)
);

টেবিলে নতুন ফিল্ড যোগ করার SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
ALTER TABLE table_name ADD
(
new_column_name_1 data_type(size),
new_column_name_2 datat_ype(size)
);

টেবিল থেকে একটি ফিল্ড মুছে ফেলার SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
ALTER TABLE table_name DROP column_name;

ডেটাবেজ থেকে টেবিল মুছে ফেলার SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
DROP TABLE table_name;

DML(Data Manipulation Language) এর ব্যবহারঃ

কোন টেবিলে নতুন রেকর্ড যোগ করার SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
INSERT INTO table_name (column_name_1,column_name_2,..)
VALUES(Value_1,Value_2,..);

student_info নামে উপরের টেবিলে নতুন রেকর্ড যোগ করার SQL কমান্ডঃ
INSERT INTO student_info(Id, Name, Section, GPA, City) VALUES( 1, “Ashek", ”A”, 5.00, "Dhaka“ ) ;

এক বা একাদিক রেকর্ড আপডেট করার জন্য SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
UPDATE table_name
SET column_name_1=value, column_name_2=value, ... WHERE condition;

student_info নামে উপরের টেবিলের Id = 2 রেকর্ডটির City এর মান Khulna করার জন্য SQL কমান্ডঃ
UPDATE student_info SET City="Khulna“ WHERE Id = 2;

এক বা একাদিক রেকর্ড ডিলিট করার জন্য SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
DELETE FROM table_name WHERE condition;

student_info নামে উপরের টেবিলের Id =1 রেকর্ডটি ডিলিট করার জন্য SQL কমান্ডঃ
DELETE FROM student_info WHERE Id = 1;

একটি টেবিলের সবগুলো রেকর্ড ডিলিট করার জন্য SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
DELETE FROM table_name;

একটি টেবিল থেকে সকল ফিল্ড এবং রেকর্ড সিলেক্ট করে দেখানোর SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
SELECT */ column_name_1,column_name_2,.. FROM table_name;

student_info নামে উপরের টেবিলের সকল ফিল্ড এবং রেকর্ড সিলেক্ট করে দেখানোর SQL কমান্ডঃ
SELECT * FROM student_info;

একটি টেবিল থেকে নির্দিস্ট কিছু ফিল্ড এবং সকল রেকর্ড সিলেক্ট করে দেখানোর SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
SELECT column_name_1,column_name_2,.. FROM table_name;

student_info নামে উপরের টেবিলের নির্দিস্ট কিছু ফিল্ড এবং সকল রেকর্ড সিলেক্ট করে দেখানোর SQL কমান্ডঃ
SELECT Name, Section, GPA FROM student_info;

টেবিল থেকে নির্দিষ্ট শর্তসাপেক্ষে ডেটা সিলেক্ট করে দেখানোর SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
SELECT */ column_name_1,column_name_2,.. FROM table_name WHERE condition;

student_info নামে উপরের টেবিলে যাদের GPA=5.00 তাদের তথ্য দেখানোর SQL কমান্ডঃ
SELECT * FROM student_info WHERE GPA=5.00;

টেবিল থেকে ডেটা সিলেক্ট করে কোন এক বা একাধিক ফিল্ডের উপর ভিত্তি করে রেকর্ড গুলোকে উর্ধক্রম অনুসারে সাজিয়ে দেখানোর SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
SELECT */ column_name_1,column_name_2,.. FROM table_name
WHERE condition ORDER BY column_name ASC;

student_info নামে উপরের টেবিলের ডেটা সিলেক্ট করে Id ফিল্ডের উপর ভিত্তি করে রেকর্ড গুলোকে উর্ধক্রম অনুসারে সাজিয়ে দেখানোর SQL কমান্ড:
SELECT * FROM student_info ORDER BY Id ASC;

টেবিল থেকে ডেটা সিলেক্ট করে অধঃক্রম অনুসারে সাজিয়ে দেখানোর SQL কমান্ডের সিনট্যাক্সঃ
SELECT */ column_name_1,column_name_2,.. FROM table_name
WHERE condition ORDER BY column_name DESC;

student_info নামে উপরের টেবিলের ডেটা সিলেক্ট করে Id ফিল্ডের উপর ভিত্তি করে রেকর্ড গুলোকে অধঃক্রম অনুসারে সাজিয়ে দেখানোর SQL কমান্ড:
SELECT * FROM student_info ORDER BY Id DESC;

ডেটাবেজের অপারেটর সমূহ: ডেটাবেজের বিভিন্ন SQL কমান্ড লেখার জন্য বিভিন্ন অপারেটর প্রয়োজন হয়। ডেটাবেজের বিভিন্ন অপারেটর সমূহ নিচে আলোচনা করা হল-
১। Arithmetic অপারেটর
২। Comparison অপারেটর
৩। Concatenation অপারেটর
৪। Logical অপারেটর
৫। Special অপারেটর

Arithmetic অপারেটর: নিউমেরিক এক্সপ্রেশন তৈরি করতে Arithmetic অপারেটর ব্যবহার করা হয়। যেমন – যোগ, বিয়োগ, গুণ,ভাগ ইত্যাদির জন্য ব্যবহৃত হয়।

Comparison অপারেটর: দুটি এক্সপ্রেশনের মধ্যে তুলনা করতে Comparison অপারেটর ব্যবহৃত হয়। একে রিলেশনাল অপারেটরও বলা হয়।

Concatenation অপারেটর: দুটি স্ট্রিংকে যোগ করার জন্য Concatenation অপারেটর ব্যবহার করা হয়। & চিহ্ন হচ্ছে Concatenation অপারেটর। এছাড়া + চিহ্ন দ্বারাও দুটি স্ট্রিংকে যোগ করা যায়।
যেমন- string_1=“Con” এবং string_2=“catenation”
result = string_1 & string_2 অথবা result = string_1 + string_2

Logical অপারেটর: দুটি এক্সপ্রেশনকে একত্র করে এবং এক্সপ্রেশনটি সত্য বা মিথ্যা মূল্যায়ন করে।



অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।


Next
This is the current newest page
Previous
Next Post »

আপনার কোন কিছু জানার থাকলে কমেন্টস বক্স এ লিখতে পারেন। আমরা যথাযত চেস্টা করব আপনার সঠিক উত্তর দিতে। ভালো লাগলে ধন্যবাদ দিতে ভুলবেন না।
- শুভকামনায় ওয়েব স্কুল বিডি
ConversionConversion EmoticonEmoticon