নিচের কোনটি সম্পর্কে তুমি জানতে আগ্রহী?

আইসিটি অধ্যায়-২.৪: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায়-২.৪: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং এর অনুধাবন প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হলো

অনলাইন এক্সামের বিভাগসমূহ:
জে.এস.সি
এস.এস.সি
এইচ.এস.সি
সকল শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন
বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি
বিসিএস প্রিলি টেষ্ট

আইসিটি অধ্যায়-২.৪: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

অনুধাবন প্রশ্ন ও উত্তরঃ-

১। মডেমকে ডেটা কমিউনিকেশনের উপাদান বলা হয় কেন? ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ

২। ডেটা কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে প্রেরক ও প্রাপকের ভূমিকা ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ

৩। ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

http://www.webschoolbd.com
৪। 9600 bps কী? ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ– একক সময়ে এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইস বা এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ডেটা স্থানান্তরের হারকে ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড বলে। একে ব্যান্ডউইডথ ও বলা হয়ে থাকে যার একক Bit Per Second (bps)। 9600 bps বলতে বোঝায় প্রতি সেকেন্ডে 9600 বিট ডেটা এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে স্থানান্তরিত হয়। উদাহরণ- টেলিফোন লাইনে ভয়েস ব্যান্ড বা Voice Band ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীডের।

৫। ব্যান্ডউইডথ 512 Kbps বলতে কী বুঝায়? ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–একক সময়ে এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইস বা এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ডেটা স্থানান্তরের হারকে ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড বলে। একে ব্যান্ডউইডথ ও বলা হয়ে থাকে যার একক Bit Per Second (bps)। 512 Kbps বলতে বোঝায় প্রতি সেকেন্ডে 512 কিলোবিট অর্থাৎ ৫১২০০০ বিট ডেটা এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে স্থানান্তরিত হয়।

৬। কী-বোর্ড থেকে কম্পিউটারে ডেটা স্থানান্তরের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ব্যান্ডউইডথ ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

৭। কম ডেটা ট্রান্সমিশনের জন্য কোন ধরনের পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়? ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

৮। “অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশনে সময় বেশি লাগে”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে প্রেরক হতে গ্রাহকের নিকট ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার অথবা বিট বাই বিট ডেটা ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে। অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশনে সময় বেশি লাগে। কারন- এ পদ্ধতিতে প্রেরক কম্পিউটার হতে গ্রাহক কম্পিউটারে ডেটা Character by Character অর্থাৎ Bit by Bit ট্রান্সমিট হয় ফলে সময় বেশি লাগে। প্রতিটি ক্যারেক্টারের শুরু এবং শেষ বোঝার জন্য শুরুতে একটি Start bit এবং শেষে একটি Stop bitপ্রয়োজন হয়। স্পীড কম হয়ে থাকে।

৯। “সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন ব্যয়বহুল পদ্ধতি”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

১০। “ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার ডেটা ট্রান্সমিশন সম্ভব”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ– যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে প্রেরক হতে গ্রাহকের নিকট ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার অথবা বিট বাই বিট ডেটা ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে। সাধারণত Narrow band ব্যান্ডউইডথ-এ ডেটা ট্রান্সমিশন করার ক্ষেত্রে ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার ট্রান্সমিশন পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়। এ পদ্ধতিতে প্রেরক কম্পিউটার হতে গ্রাহক কম্পিউটারে ডেটা Character by Character অর্থাৎ Bit by Bit ট্রান্সমিট হয় ফলে সময় বেশি লাগে। ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড কম থাকে অর্থাৎ কম ডেটা ট্রান্সমিশনে এই পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

১১। সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশনে প্রাইমারি মেমোরির প্রয়োজন কেন?-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে ডেটা সমূহকে ব্লক আকারে ভাগ করে ব্লক বাই ব্লক অথবা প্যাকেট বাই প্যাকেট ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে। এই ট্রান্সমিশন ব্যবস্থায় প্রেরক যন্ত্রে একটি প্রাইমারি স্টোরেজ ডিভাইস ব্যবহার করা হয় যাতে করে প্রেরিত ডেটা সমূহ ব্লক আকার ধারণ করতে পারে। প্রতিটি প্যাকেট বা ব্লকে ৮০-১৩২ টি বিট সংরক্ষণ করা যায়। প্রতিটি প্যাকেট বা ব্লক প্রয়োজনীয় বিট দ্বারা সম্পন্ন করতে এই প্রাইমারি মেমোরি প্রয়োজন হয়।

১২। “ডেটা ব্লক আকারে ট্রান্সমিশন করা হয়”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

১৩। “অ্যাসিনক্রোনাসের তুলনায় সিনক্রোনাস পদ্ধতিতে ডেটা চলাচলের গতি বেশি”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–

১৪। “ডেটা ট্রান্সমিশনের সময় ব্যবধান(Time Interval) সমান”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে ডেটা সমূহকে ব্লক আকারে ভাগ করে ব্লক বাই ব্লক অথবা প্যাকেট বাই প্যাকেট ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে। প্রতিটি ব্লকে 80-132 টি বিট থাকে। প্যাকেটের শুরু এবং শেষ বোঝার জন্য যথাক্রমে একটি Header এবং একটি Trailer ব্যবহার করা হয়। সিনক্রোনাস ডেটা ট্রান্সমিশনের প্রতিটি প্যাকেটের মধ্যবর্তী সময় ব্যবধান সর্বদা একই থাকে।

১৫। “আইসোক্রোনাস ট্রান্সমিশন সিনক্রোনাসের উন্নত ভার্সন”-ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–অ্যাসিনক্রোনাস এবং সিনক্রোনাস উভয় পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য সমূহ বিদ্যমান থাকে। সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশনের উন্নত ভার্সন বলা হয়ে থাকে। ডেটা প্রেরণ করে ব্লক আকারে যা সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন পদ্ধতির বৈশিষ্ট্য এবং সময় ব্যবধান প্রায় একই থাকে। দু’টি ব্লকের মধ্যে সময়ের পার্থক্য 0 (শূন্য) একক করার চেষ্টা করা হয়। সাধারণত রিয়েল টাইম অ্যাপ্লিকেশনের ডেটা ট্রান্সফারে এ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

১৬। টেলিভিশন(TV) সম্প্রচারের জন্য ব্যবহৃত মোড ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ–TV সম্প্রচারের জন্য ব্যবহৃত ডেটা ট্রান্সমিশন মোড হচ্ছে সিমপ্লেক্স। ডেটা ট্রান্সমিশনের এই পদ্ধতিতে ডেটা শুধুমাত্র এক প্রান্ত থেকে প্রেরণ করা যায় এবং অপর প্রান্ত থেকে গ্রহণ করা যায় অর্থাৎ ডেটা কেবলমাত্র এক দিকে প্রবাহিত হতে পারে। এক্ষেত্রে টেলিভিশন নেটওয়ার্ক চ্যানেল শুধু ডেটা পাঠাতে পারে এবং টেলিভিশনের দর্শক বা শ্রোতা শুধুমাত্র ডেটা গ্রহণ করতে পারে কখনোই ডেটা প্রেরণ করতে পারে না। আরও অনেক ক্ষেত্রে ডেটা প্রেরণের সময় সিমপ্লেক্স মোড ব্যবহার করা হয়। যেমন- পেজার সিস্টেম, রেডিও ইত্যাদি।

১৭। শ্রেণিকক্ষে পাঠদানকে কোন ট্রান্সমিশন মোডের সাথে তুলনা করা যায়? ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃশ্রেণিকক্ষে পাঠদান পদ্ধতিকে হাফ-ডুপ্লেক্স ডেটা ট্রান্সমিশন মোডের সাথে তুলনা করা হয়। এই ধরনের মোডে উভয় দিক থেকে ডেটা আদান-প্রদানের ব্যবস্থা থাকে কিন্তু তা একসাথে সম্ভব নয়। অর্থাৎ প্রেরক ডেটা পাঠানো সম্পন্ন করলে প্রাপক সেই ডেটা গ্রহণ করার পর প্রেরকের কাছে ডেটা পাঠাতে পারে। শ্রেণিকক্ষে যখন শিক্ষক কথা বলেন, সকল শিক্ষার্থী তা মনোযোগ দিয়ে শোনেন। আবার কেউ প্রশ্ন করলে শিক্ষক তা শুনে প্রশ্নের উত্তর শিক্ষার্থীকে বুঝিয়ে দেন।

১৮। “ওয়াকিটকিতে যুগপৎ কথা বলা ও শোনা সম্ভব নয়”- ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃওয়াকিটকিতে কথা বলা এবং শোনার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত ডেটা ট্রান্সমিশন মোড হচ্ছে হাফ-ডুপ্লেক্স। এই ধরনের মোডে উভয় দিক থেকে ডেটা আদান-প্রদানের ব্যবস্থা থাকে কিন্তু তা একসাথে সম্ভব নয়। অর্থাৎ প্রেরক ডেটা পাঠানো সম্পন্ন করলে প্রাপক সেই ডেটা গ্রহণ করার পর প্রেরকের কাছে ডেটা পাঠাতে পারে। ওয়াকিটকিতে একই ধরনের কার্য সম্পন্ন হয়। দুইটি ওয়াকিটকি দ্বারা কথা বলার সময় এক পক্ষের কথা শেষ হলে অপর পক্ষ কথা শুরু করে। অর্থাৎ এক সাথে বা যুগপৎ কথা বলা এবং শোনা সম্ভব নয়।

১৯। “ব্রাউজারে একই সাথে উভয় দিক থেকে ডেটা আদান-প্রদান সম্ভব নয়”- ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃ ব্রাউজারে ডেটা আদান-প্রদানের জন্য ব্যবহৃত ডেটা ট্রান্সমিশন মোড হচ্ছে হাফ-ডুপ্লেক্স। এই ধরনের মোডে উভয় দিক থেকে ডেটা আদান-প্রদানের ব্যবস্থা থাকে কিন্তু তা একসাথে সম্ভব নয়। অর্থাৎ প্রেরক ডেটা পাঠানো সম্পন্ন করলে প্রাপক সেই ডেটা গ্রহণ করার পর প্রেরকের কাছে ডেটা পাঠাতে পারে।

২০। “মোবাইল ফোনের ডেটা ট্রান্সমিশন মোডটি ব্যাখ্যা কর।
উত্তরঃমোবাইল ফোনের ডেটা ট্রান্সমিশন মোড হলো ফুল-ডুপ্লেক্স। যে ট্রান্সমিশন মোড ব্যবহার করে ডেটা প্রেরণ এবং গ্রহণ উভয় একই সাথে সম্পন্ন করা সম্ভব তাকে ফুল-ডুপ্লেক্স মোড বলা হয়। বর্তমানে আমরা সাচ্ছন্দে কথা বলা বা শোনার জন্য যেসব প্রযুক্তি ব্যবহার করে থাকি, তা সবই ফুল-ডুপ্লেক্স মোডে কাজ করে। এই ধরনের প্রযুক্তি ব্যবহার করে প্রেরক ও গ্রাহক একই সাথে ডেটা আদান-প্রদান করতে পারে।



অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

আইসিটি অধ্যায়-২.১: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায়-২.১: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং এর জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে আলোচনা করা হলো

অনলাইন এক্সামের বিভাগসমূহ:
জে.এস.সি
এস.এস.সি
এইচ.এস.সি
সকল শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন
বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি
বিসিএস প্রিলি টেষ্ট

আইসিটি অধ্যায়-২.১: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

জ্ঞানমূলক প্রশ্ন ও উত্তরঃ-

১। কমিউনিকেশন সিস্টেম কী?
উত্তরঃ–কম্পিউটার নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার মাধ্যমে এক কম্পিউটার হতে অন্য কম্পিউটারে বিভিন্ন ডেটা, ফাইল ইত্যাদি সহজ এবং দ্রুততার সাথে আদান-প্রদানের পদ্ধতিকে ডেটা কমিউনিকেশন বলে।

২। ডেটা ট্রান্সমিশন কী?
উত্তরঃ–যে বিশেষ পদ্ধতিতে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে অথবা এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ডেটা আদান-প্রদান করা হয়। তাকে ডেটা ট্রান্সমিশন বলা হয়।

৩। ডেটা কমিউনিকেশন সিস্টেমের বৈশিষ্ট্য কী কী?
উত্তরঃ–তিনটি বৈশিষ্ট্যের উপর ডেটা কমিউনিকেশনের কার্যকারিতা নির্ভর করে। যথা-
অ্যাকুরেসি (Accuracy): সিস্টেমকে অবশ্যই সঠিকভাবে ডেটা এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ডেলিভারি বা পাঠাতে হবে।
ডেলিভারি (Delivery): সিস্টেমকে অবশ্যই সঠিক প্রান্তে অর্থাৎ গন্তব্যের কাছে ডেটা প্রেরণ করতে হবে।
টাইমলিনেস (Timeliness): নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ডেটা প্রেরণ করতে হবে।

http://www.webschoolbd.com
৪। ডেটা কমিউনিকেশন উপাদান সমূহের নাম লিখ।
উত্তরঃ–মূলত ডেটা কমিউনিকেশনের উপাদান হলো পাঁচটি। যথা-
উৎস (Source)
প্রেরক (Sender)
মাধ্যম (Medium)
প্রাপক (Receiver)
গন্তব্য (Destination)

৫। ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড বা ব্যান্ডউইডথ কী?
উত্তরঃ–এক স্থান থেকে অন্য স্থানে প্রতি একক সময়ে যে পরিমাণ ডেটা স্থানান্তরিত হয় তাকে ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীড বলে। এই ডেটা ট্রান্সমিশন স্পীডকে ব্যান্ডউইডথ বলা হয়ে থাকে। ব্যান্ডউইডথ এর একক bps.

৬। bps বলতে কী বুঝ?
উত্তরঃ–bps এর পূর্ণরূপ হচ্ছে bit per second (bps). ব্যান্ডউইডথ-এর হিসাব করা হয় bps এককে। এক সেকন্ডে যতগুলো বিট এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তরিত হয়, তাকে ব্যান্ডউইডথ বলে।

৭। বিভিন্ন ব্যান্ডউইডথ সম্পর্কে লিখ।
উত্তরঃ–ডেটা ট্রান্সমিশন গতির উপর ভিত্তি করে ব্যান্ডউইডথকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়ে থাকে। যথা-
ন্যারো ব্যান্ড (Narrow Band): Speed 45 – 300 bps
ভয়েস ব্যান্ড (Voice Band): Speed 9600 bps পর্যন্ত
ব্রডব্যান্ড (Broad Band): Speed 1Mb – 1Gb পর্যন্ত হয়ে থাকে।

৮। ডেটা ট্রান্সমিশন পদ্ধতি কী?
উত্তরঃ–বিট বিন্যাসের মাধ্যমে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে অথবা এক কম্পিউটার থেকে অন্য কম্পিউটারে ডেটা স্থানান্তরের প্রক্রিয়াকে ডেটা ট্রান্সমিশন পদ্ধতি বা মেথড বলে।

৯। কমিউনিকেশন মাধ্যম কী?
উত্তরঃ–ডেটা আদান-প্রদানের উদ্দেশ্যে একাধিক ডিভাইস সমূহের মধ্যে সংযোগ স্থাপনের জন্য যে সকল উপাদান ব্যবহার করা হয় তাকে কমিউনিকেশন Medium বা মাধ্যম বলা হয়।

১০। বিট সিনক্রোনাইজেশন কী?
উত্তরঃ-ডেটা ট্রান্সমিশনের ক্ষেত্রে সিগন্যাল পাঠানোর সময় বিভিন্ন বিটের মধ্যে সমন্বয়ের জন্য ব্যবহৃত পদ্ধতিই বিট সিনক্রোনাইজেশন নামে পরিচিত।

১১। প্যারালাল ট্রান্সমিশন কী?
উত্তরঃ-যে ট্রান্সমিশনে প্রেরক ও প্রাপকের মধ্যে ডেটার বিট বিন্যাস সমান্তরালভাবে আদান-প্রদান করতে পারে তাকে প্যারালাল ডেটা ট্রান্সমিশন বলে।

১২। সিরিয়াল ট্রান্সমিশন কী?
উত্তরঃ-যে ট্রান্সমিশনে ডেটা বা তথ্য পর্যায়ক্রমে এক বিট করে আদান-প্রদান করে তাকে সিরিয়াল ট্রান্সমিশন বলা হয়।

১৩। অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন মেথড কী?
উত্তরঃ-যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে প্রেরক হতে গ্রাহকের নিকট ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার অথবা বিট বাই বিট ডেটা ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে।

১৪। সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন মেথড কী?
উত্তরঃ-যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে ডেটা সমূহকে ব্লক আকারে ভাগ করে ব্লক বাই ব্লক অথবা প্যাকেট বাই প্যাকেট ট্রান্সমিশন করা হয় তাকে সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন বলে।

১৫। আইসোক্রোনাস ট্রান্সমিশন পদ্ধতি কী?
উত্তরঃ-সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশনের উন্নত ভার্সন বলা হয়ে থাকে। আইসোক্রোনাস ট্রান্সমিশন পদ্ধতিতে সিনক্রোনাস এবং অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন উভয়ের বৈশিষ্ট্যই বিদ্যমান থাকে। এক্ষেত্রে ডেটা ট্রান্সমিশনের দুইটি ব্লকের মধ্যবর্তী সময় ব্যবধান প্রায় শূন্য (০) একক করার চেষ্টা করা হয়। সাধারণত রিয়েল টাইম অ্যাপ্লিকেশনে এই পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

১৬। ডেটা কমিউনিকেশন/ট্রান্সমিশন মোড কী?
উত্তরঃ-উৎস থেকে গন্তব্যে ডেটা আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে ডেটা প্রবাহের দিককে ডেটা ট্রান্সমিশন মোড বলা হয়। ডেটা প্রবাহের উপর ভিত্তি করে ট্রান্সমিশন মোডকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়। যথা- সিমপ্লেক্স, হাফ-ডুপ্লেক্স এবং ফুল-ডুপ্লেক্স।

১৭। ডেটা কমিউনিকেশন/ট্রান্সমিশন মোডের প্রকারভেদ কী?
উত্তরঃ-মূলত ডেটা কমিউনিকেশনের বা ট্রান্সমিশনের মোড তিন ধরনের। যথা-
সিমপ্লেক্স (Simplex)
হাফ-ডুপ্লেক্স (Half-Duplex)
ফুল-ডুপ্লেক্স (Full-Duplex)

১৮। ডেটা কমিউনিকেশনের/ট্রান্সমিশন সিমপ্লেক্স মোডের প্রকারভেদ সমূহ লিখ?
উত্তরঃ-সিমপ্লেক্স ট্রান্সমিশন মোডকে আবার তিন ভাগে ভাগ করা হয়।
ইউনিকাস্ট (Unicast)
ব্রডকাস্ট (Broadcast)
মাল্টিকাস্ট (Multicast)

১৯। সিমপ্লেক্স মোড কী?
উত্তরঃ-ডেটা ট্রান্সমিশনের এই পদ্ধতিতে ডেটা শুধুমাত্র এক প্রান্ত থেকে প্রেরণ করা যায় এবং অপর প্রান্ত থেকে গ্রহণ করা যায়। অর্থাৎ ডেটা কেবলমাত্র এক দিকে প্রবাহিত হতে পারে। যেমন- পেজার সিস্টেম, রেডিও ইত্যাদি।

২০। হাফ-ডূপ্লেক্স মোড কী?
উত্তরঃ-ডেটা ট্রান্সমিশনের ক্ষেত্রে দুই দিকেই অর্থাৎ প্রেরক এবং প্রাপক উভয় দিক থেকেই ডেটা ট্রান্সমিশনের সুযোগ থাকে। তবে এই ক্ষেত্রে ডেটা ট্রান্সমিশন একই সময়ে বা যুগপৎ ভাবে সম্ভব নয়। অনেকটা রাস্তা একটি কিন্তু যানবাহন দুই দিকেই যেতে সক্ষম। যেমন- ওয়াকিটকি, শ্রেণিকক্ষে পাঠদান ইত্যাদি।

২১। ফুল-ডূপ্লেক্স মোড কী?
উত্তরঃ-যে ট্রান্সমিশন মোড ব্যবহার করে ডেটা প্রেরণ এবং গ্রহণ একই সাথে সম্পন্ন করা সম্ভব তাকে ফুল-ডুপ্লেক্স মোড বলা হয়। অনেকটা দুই লেনের রাস্তা এবং যানবাহন দুই দিকেই চলাচল করে। টেলিফোন, মোবাইল ইত্যাদি।

২২। ইউনিকাস্ট মোড কী?
উত্তরঃ-ডেটা কেবলমাত্র একজন প্রেরক থেকে একজন প্রাপকের দিকে ডেটা প্রবাহিত হতে পারে। যেমন-পেজার সিস্টেম

২৩। ব্রডকাস্ট মোড কী?
উত্তরঃ-প্রেরক সকল প্রাপকের কাছে ডেটা পাঠাতে সক্ষম। অর্থাৎ প্রেরক থেকে ডেটা প্রেরণ করলে নেটওয়ার্কের অন্তর্ভুক্ত যেকোনো প্রাপক কম্পিউটার সেই ডেটা গ্রহণ করতে পারে। যেমন- Television, রেডিও।

২৪। মাল্টিকাস্ট মোড কী?
উত্তরঃ-এক্ষেত্রে সকল প্রাপক কম্পিউটার ডেটা পেতে সক্ষম, কিন্তু তারাই নির্দিষ্ট ডেটা দেখতে পারবে যাদেরকে নেটওয়ার্ক অনুমতি দেয়। উদাহরণ- Tele-conferencing, Video-conferencing

২৫। অ্যানিকাস্ট মোড কী?
উত্তরঃ-যে ডেটা ট্রান্সমিশনে ডেটা সমূহ অনেকগুলো গন্তব্যের মধ্যে যেকোনো একটি গন্তব্যে গমন করে তাকে অ্যানিকাস্ট ডেটা ট্রান্সমিশন মোড বলা হয়। একে 1 to 1 of many Association ও বলা হয়ে থাকে।

২৬। জিওকাস্ট মোড কী?
উত্তরঃ-যে ডেটা ট্রান্সমিশনের ক্ষেত্রে ডেটা সমূহ ভৌগোলিক অবস্থান অনুযায়ী স্থানান্তরিত হয় তাকে জিওকাস্ট মোড বলে। এটি এক ধরনের বিশেষ মাল্টিকাস্ট মোড।


অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

আইসিটি অধ্যায়-২.৩: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং MCQ2

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায়-২.৩: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং এর বহুনির্বাচনি প্রশ্ন (51-100) খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করা হলো

অনলাইন এক্সামের বিভাগসমূহ:
জে.এস.সি
এস.এস.সি
এইচ.এস.সি
সকল শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন (খুব শীঘ্রই আসছে)
বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি (খুব শীঘ্রই আসছে)
বিসিএস প্রিলি টেষ্ট

আইসিটি অধ্যায়-২.৩: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন (51-100)

51. কোনটি ব্লুটুথ ও ইনফ্রারেডের মাধ্যমে হ্যান্ডসেট বা ল্যাপটপের মধ্যে যোগাযোগের পদ্ধতি-
ক. WWAN
খ. WMAN
গ. WPAN
ঘ. WLAN
উত্তর: গ. WPAN

52. কয়েকটি wireless LAN মিলে নিম্নের কোনটি গঠিত হয়?
ক. WWAN
খ. WMAN
গ. WPAN
ঘ. WLAN
উত্তর: খ. WMAN

http://www.webschoolbd.com
53. কোনটিতে Wi-Max প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়?
ক. WWAN
খ. WMAN
গ. WPAN
ঘ. WLAN
উত্তর: খ. WMAN

54. দূরে গ্রহ, গ্যালাক্সি এবং মহাশূন্যে বিভিন্ন বিপর্যয় পর্যবেক্ষন কাজ- এ নিম্নের কোনটির ব্যবহার করা হয়?
ক. রেডিও ওয়েভ
খ. স্যাটেলাইট মাইক্রোওয়েভ
গ. টেরিস্ট্রিয়াল মাইক্রোওয়েভ
ঘ. ওয়্যারলেস
উত্তর:খ. স্যাটেলাইট মাইক্রোওয়েভ

55. বর্তমানে মোবইল ফোনে ওয়্যারলেস প্রযুক্তিতে বহুল ব্যবহৃত প্রযুক্তি কোনটি?
ক. ওয়াই-ফাই
খ. তার মাধ্যমে
গ. অপটিক্যাল ফাইবার
ঘ. কো-এক্সিয়াল
উত্তর: ক. ওয়াই-ফাই

56.LMR-এর পূর্ণরুপ কী?
ক. Local Mobile Radio
খ. Local Mobile Resister
গ. Land Mobile Radio
ঘ. Local Mbality Radio
উত্তর: গ. Land Mobile Radio

57. SMR- এর পূর্ণরুপ কী?
ক. Specialized Mobile Radio
খ. Speed Mobile Radio
গ. Special Mobile Radio
ঘ. Social Mobile Radio
উত্তর: ক. Specialized Mobile Radio

58. গাড়ির চালকের গতিবিধি বা কোথায় রয়েছে তা জানার উপায় কোনটি?
ক. জিপিএস
খ. মোবাইল
গ. ফেসবুক
ঘ. ব্লুটুথ
উত্তর: ক. জিপিএস

59. WAN- এর পূর্ণরুপ কী?
ক. World Area Network
খ. Wide Area Network
গ. World After Network
ঘ. World After Nature
উত্তর: খ. Wide Area Network

60. ড. মার্টিন কুপার যে মোবাইলটি ১৯৭৩ সালে সর্ব প্রথম প্রদর্শন করেন তার ওজন কত ছিল?
ক. ২৫০ কেজি
খ. ৫.০০ গ্রাম
গ. ১ কেজি
ঘ. ১.৫ কেজি
উত্তর:

61. ব্লুটুথ উদ্ভাবন করেন কে?
ক. টেলিকম
খ. হার্ড এল্ড্রিসন
গ. এরিকসন
ঘ. আইবিএম
উত্তর: গ. এরিকসন

62. ব্লুটুথের মাধ্যমে কোন নেটওয়ার্ক তৈরী হয়?
ক. PAN
খ. LAN
গ. WAN
ঘ. MAN
উত্তর:ক. PAN

63. কত সালে ব্লুটুথ উদ্ভাবন করা হয়?
ক. ১৯৮০ সালে
খ. ১৯৯৪ সালে
গ. ২০০৪ সালে
ঘ. ১৯৬২ সালে
উত্তর: খ. ১৯৯৪ সালে

64. Bluetooth Special interest group এর সদস্য কত?
ক.প্রায় ১২০০০
খ. প্রায় ২০০০০
গ. প্রায় ১৭০০০
ঘ. প্রায় ২৫০০০
উত্তর: গ. প্রায় ১৭০০০

65. দুই বা ততোধিক যন্ত্রের মধ্যে তারবিহীন যোগাযোগের পদ্ধতিকে কী বলে?
ক.মোবাইল ফোন
খ. কম্পিউটার
গ. ওয়্যারলেস কমিউনিশেন
ঘ. স্মার্টফোন
উত্তর: গ. ওয়্যারলেস কমিউনিশেন

66. ব্লুটুথ কত দূরত্ব পর্যন্ত সংযোগ স্থাপন করতে পারে?
ক. 10cm-10m
খ. 1km-10km
গ. 10m-20m
ঘ. 10cm-40m
উত্তর: ক. 10cm-10m

67. নিম্নশক্তি সম্পন্ন রেডিও সঞ্চালনে ডেটা পরিবহন করতে সক্ষম যে যন্ত্র তার নাম-
ক. ইনফ্রারেড
খ. ব্লুটুথ
গ. মোবাইল ফোন
ঘ. রেডিও
উত্তর: খ. ব্লুটুথ

68. লোকাল এরিয়া নেটওয়ার্কের আওতায় পড়ে-
ক.অফিসভিত্তিক নেটওয়ার্ক
খ. রুমভিত্তিক নেটওয়ার্ক
গ. জেলাভিত্তিক নেটওয়ার্ক
ঘ. বিভাগীয় নেটওয়ার্ক
উত্তর: ক.অফিসভিত্তিক নেটওয়ার্ক

69. Wi-fi- এর স্ট্যান্ডার্ড হচ্ছে-
ক. IEEE 80.211
খ. IEE 802.11
গ. IEEE 802.11
ঘ. IEE 80.211
উত্তর: গ. IEEE 802.11

70. IEEE এর পূর্ণরুপ কী?
ক.Institute of Electrical and Electronics Engineers
খ. Institute of Electrical and Electronics Engineers
গ. Impact of Electrical and Electronics Engineers
ঘ. Institute of Electrical and Electronics Engineers
উত্তর: খ. Institute of Electrical and Electronics Engineers

71. বাড়ীর বিভিন্ন ধরনের ডিজাইনের জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার কেনটি?
ক. CAD
খ. MS EXCEL
গ. ORACAL
ঘ. POWER POINT
উত্তর: ক. CAD

72. বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পাশাপাশি কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রে কোনটি সহায়তা করবে?
ক. আউট সোর্সিং
খ. কৃষি কাজ
গ. ব্যবসায়
ঘ. চাকরি
উত্তর: ক. আউট সোর্সিং

73. IP ADDRESS কী?
ক. ইন্টারনেটের ঠিকানা
খ. ইন্টারনেটের ঠিকানা
গ. ইন্টারনেটের স্পেস
ঘ. ইন্টারনেটের স্পিড
উত্তর: ক. ইন্টারনেটের ঠিকানা

74. অনলাইনের মাধ্যমে ব্যাবসায়কে কী বলে?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-ব্যাংক
গ. ই-গভর্নেস
ঘ. ই-বাজার
উত্তর: ক. ই-কমার্স

75. ই-কমার্স কোন ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলেছে?
ক. মহাকাশ অভিযান
খ. চিকিৎসা
গ. বাসস্থান
ঘ. ব্যাবসায় বানিজ্য
উত্তর: ঘ. ব্যাবসায় বানিজ্য

76. যোগাযোগ ব্যবস্থার অবণর্নীয় পরিবর্তনের একটি মাইলফলক কেনটি?
ক. বাস
খ. ট্রেন
গ. বিশ্বগ্রাম
ঘ. ফোন
উত্তর: ঘ. ফোন

77. বিশ্বগ্রামে ব্যবসায়-বাণিজ্যের সরকরাহাকৃত মালামাল পর্যবেক্ষণ করার জন্য নিচের পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-মেইল
গ. ই-লর্নিং
ঘ. ই-ট্রাকিং
উত্তর: ক. ই-কমার্স

78. ব্যবসায় বানিজ্যের আধুনিকতম সংস্করণ নিচের কোনটি?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-মেইল
গ. ই-লর্নিং
ঘ. ই-ট্রাকিং
উত্তর: ক. ই-কমার্স

79. স্টক একচেঞ্জ নিচের কেন পদ্ধতিতে কেনাবেচা করে?
ক. ই-ট্রাকিং
খ. ই-মেইল
গ. ই-কমার্স
ঘ. ই-লার্নিং
উত্তর: গ. ই-কমার্স

80. E-Payment System-এর সহায়তায় নিচের কোন কাজটি করা হয়?
ক. মূল্য পরিশোধ
খ. মূল্য নির্ধারন
গ. পণ্যের বিপনন
ঘ. ই-বুকিং
উত্তর: ক. মূল্য পরিশোধ

81. বিশ্বের এক প্রান্ত হতে অন্যপ্রান্তে কোন পণ্যের অর্থ পরিশোধে কোন মাধ্যম ব্যবহৃত হয়?
ক. পে-অর্ডার
খ. ক্রেডিট কার্ড
গ. চেক
ঘ. নগদ ক্যাশ
উত্তর: খ. ক্রেডিট কার্ড

82. শিক্ষাক্ষেত্রে নিম্নের কোনটি অধিক কাজ প্রযোজ্য?
ক. ইন্টারনেট
খ. ব্লগ
গ. আউটসোর্সিং
ঘ. ই- কমার্স
উত্তর: ক. ইন্টারনেট

83. Blog কী
ক. অনলাইন পত্রিকা
খ. দিনলিপি
গ. ব্যক্তিকেন্দ্রিক পত্রিকা
ঘ. ইন্টারনেট ব্যবস্থা
উত্তর: গ. ব্যক্তিকেন্দ্রিক পত্রিকা

84. যিনি ব্লগে পোষ্ট করেন তাকে কী বলে?
ক. ব্লগার
খ. ব্লগারিজম
গ. ব্লগ
ঘ. ব্লগসুপার
উত্তর: ক. ব্লগার

85. যেখানে বহুসংখ্যক ইন্টারনেট ব্যবহারকারী তাদের মতামত ও লেখনীয় মাধ্যমে একটি প্লাটফর্ম গড়ে তোলেন সেটি কী?
ক. ব্লগ
খ. ইন্টানেট
গ. পত্রিকা
ঘ. সামাজিক ব্লগ
উত্তর: ঘ. সামাজিক ব্লগ

86. সংবাদ কী ?
ক. তথ্যের সমষ্টি
খ. তথ্য
গ. গবেষনা
ঘ. বৈজ্ঞানিক সূত্র
উত্তর: ক. তথ্যের সমষ্টি

87. ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বের গ্রাহকগণ কম্পিউটারের পর্দায় সংবাদপত্র পড়েন বা পিন্ট করেন তাকে কী বলে?
ক. ই -কমার্স
খ. ই -নিউজ
গ. ই-লার্নিং
ঘ. ই-মেইল
উত্তর: খ. ই -নিউজ

88. বিশ্ব সামাজিক আন্তঃযোগাযোগ ব্যবস্থা কোনটি ?
ক. সংবাদ
খ. টিভি
গ. ফেসবুক
ঘ. মোবাইল
উত্তর: গ. ফেসবুক

89. ফেসবুকের স্থাপতি কে?
ক. বিল গেটস
খ. মার্ক এন্ডিসন
গ. মার্ক জুকারবার্গ
ঘ. মাইকেল জুকারবার্গ
উত্তর: গ. মার্ক জুকারবার্গ

90. রোবটের কাজ কী?
ক. প্রোগ্রাম চালনা
খ. প্রোগ্রাম উন্নয়ন
গ. প্রোগ্রাম নিয়ন্ত্রন
ঘ. প্রতিকূল কাজে সাহায্য করা
উত্তর: ঘ. প্রতিকূল কাজে সাহায্য করা

91. নিচের কোনটি বিনোদনের উল্লেখ্যযোগ্য মাধ্যম?
ক. সংবাদ পত্র
খ. রেডিও
গ. টেলিভিশন
ঘ. কম্পিউটার
উত্তর: গ. টেলিভিশন

92. কোন খেলার সরাসরি সম্প্রচার টেলিভিশনের বিকল্প হিসেবে আমারা কী ব্যবহার করতে পারি?
ক. ইন্টারনেট
খ. রেডিও
গ. সংবাদপত্র
ঘ. ম্যাগাজিন
উত্তর: ক. ইন্টারনেট

93. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কীসে নিয়ন্ত্রিত হয়-
ক. ইন্টারনেট
খ. বেতার নিয়ন্ত্রিত
গ. কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত
ঘ. রিয়েলিটি নির্ভর
উত্তর: গ. কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত

94. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কী
ক. মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার
খ. কাল্পিনিক মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার
গ. কাল্পিনিক ব্যবহার
ঘ. কম্পিউটার ব্যবহার
উত্তর: খ. কাল্পিনিক মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার

95. বাস্তব নয় কিন্তু ব্যবহারকারী নিচের কোনটিকে বাস্তব মনে করেন?
ক. ত্রি-মাত্রিক ছবি
খ. বিহেভিয়ার
গ. টিভিল ছবি
ঘ. রিয়েলিটি শো
উত্তর: ক. ত্রি-মাত্রিক ছবি

96. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হলো অ্যাপ্লিকেশন তৈরী জন্য কোন উপাদানটি নিয়ে কাজ করতে হয়?
ক. কম্পিউটার
খ. বিহেভিয়ার
গ. তথ্য ব্যবস্থা
ঘ. এনভারনেট
উত্তর: খ. বিহেভিয়ার

97. আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স কী?
ক. নলেজ বেজড সিস্টেম
খ. নলেজ সিস্টেম
গ. কম্পিউটার সিস্টেম
ঘ. ইন্টারনেট সিস্টেম
উত্তর: ক. নলেজ বেজড সিস্টেম

98. বায়োইনফরমেট্রিক্স কী?
ক. কম্পিউটার তথ্য গবেষনা
খ. ডাটাবেজ প্রোগ্রামিং
গ. গানিতিক তথ্য বিশ্লেষন
ঘ. জীববিদ্যা বিষয়ক তথ্য প্রক্রিাকরন
উত্তর: ঘ. জীববিদ্যা বিষয়ক তথ্য প্রক্রিাকরণ

99. কম্পিউটার অনৈতিক ব্যবহারে সবচেয়ে বড় ক্ষতি হয়?
ক. ব্যবহারকারীর কম্পিউটারে ভাইরাস ছড়াতে হয়
খ. প্রযুক্তির উন্নয়নের ধারা ব্যাহত হয়
গ. কোম্পানির মুনাফা কমে যায়
ঘ. জেল-জরিমানার ঝুকি থাকে
উত্তর: গ. কোম্পানির মুনাফা কমে যায়

100. ভার্চুয়াল রিয়েলিটিতে কী ধরনের ইমেজ তৈরী হয়?
ক. একমাত্রিক
খ. দ্বি মাত্রিকা
গ. ত্রি মাত্রিক
ঘ. বহুমাত্রিক
উত্তর: গ. ত্রি- মাত্রিক

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

আইসিটি অধ্যায়-২.২: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং MCQ1

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায় ২.২:আইসিটি অধ্যায়-২: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং এর বহুনির্বাচনি প্রশ্ন খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করা হলো

অনলাইন এক্সামের বিভাগসমূহ:
জে.এস.সি
এস.এস.সি
এইচ.এস.সি
সকল শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন
বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি
বিসিএস প্রিলি টেষ্ট

আইসিটি অধ্যায় ২.২:আইসিটি অধ্যায়-২: কমিউনিকেশন সিস্টেম ও নেটওয়ার্ক‌িং

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন

1. ডেটা কমিউনিকেশন প্রক্রিয়া কয়টি ধাপে সম্পন্ন হয়ে থাকে?
২টি
৩টি
৪টি
৫টি
সঠিক উত্তর: ৫টি

2. কম্পিউটার কিংবা অন্য কোনো যন্ত্রের সাহায্যে ডেটাকে এক স্থান থেকে অন্য স্থানে কিংবা এক ডিভাইস থেকে অন্য ডিভাইসে স্থানান্তরের প্রক্রিয়াকে কী বলে?
কম্পিউটার নেটওয়ার্ক
ডেটা কমিউনিকেশন
কমিউনিকেশন
টপোলজি
সঠিক উত্তর: ডেটা কমিউনিকেশন

http://www.webschoolbd.com
3. নিচের কোনটি কমিউনিকেশন মাধ্যম নয়?
মোবাইল ফোন
ই-মেইল
ইন্টারনেট
বিমান
সঠিক উত্তর: বিমান

4. মোবাইল ফোন ডেটা কমিউনিকেশনের কোন পদ্ধতির অন্তর্ভূক্ত?
Simplex Mode
Half Duplex
Full Duplex Mode
Simple Mode
সঠিক উত্তর: Full Duplex Mode

5. ক্লোর, কোডিং, বাফার আবরণ দিয়ে নিম্নের কোনটি তৈরী হয়?
অপটিক্যাল ফাইবার
টুইস্টেড পেয়ার
কো-এক্সিয়াল
হাব
সঠিক উত্তর: অপটিক্যাল ফাইবার

6. যে প্রক্রিয়ার সুষ্ঠু ও সাবলীলভাবে যোগাযোগ সাধিত হয় তাকে কী বলে?
কম্পিউটার সিস্টেম
কমিউনিকেশন সিস্টেম
মোবাইল সিস্টেম
মেইলিং সিস্টেম
সঠিক উত্তর: কমিউনিকেশন সিস্টেম
7. টেলিকমিউনিকেশন অর্থ কী?
কাছের যোগাযোগ
দূরবর্তী যোগাযোগ
কথোপকথন
যোগাযোগ
সঠিক উত্তর: দূরবর্তী যোগাযোগ
8. কোনো ডকুমেন্ট মেইলের মাধ্যমে একস্থানে হতে অন্যস্থানে প্রেরণ কোন ধরনের কমিউনিকেশন সিস্টেম?
Optical Communication System
Radioi Communication System
Duplex Communication System
Digital Communication System
সঠিক উত্তর: Digital Communication System

9. নিম্নের কোনটি রেডিও সিগন্যালের মাধ্যমে প্রেরণ করা হয়?
অপটিক্যাল কমিউনিকেশন সিস্টেম
রেডিও কমিউনিকেশন সিস্টেম
ডুপ্লেক্স কমিউনিকেশন সিস্টেম
সবগুলো
সঠিক উত্তর: অপটিক্যাল কমিউনিকেশন সিস্টেম

10. যে কমিউনিকেশনের সিস্টেমের মাধ্যমে প্রেরক ও প্রাপক একই সাথে তথ্য বিনিময় করতে পারে তাকে কী বলে?
কৌশলগত কমিউনিকেশন সিস্টেম
হাফ ডুপ্লেক্স কমিউনিকেশন সিস্টেম
ডুপ্লেক্স কমিউনিকেশন সিস্টেম
রেডিও কমিউনিকেশন সিস্টেম
সঠিক উত্তর: হাফ ডুপ্লেক্স কমিউনিকেশন সিস্টেম

11. কমিউনিকেশন সিস্টেমের মৌলিক উপাদান কয়টি?
৩টি
৪টি
৫টি
৬টি
সঠিক উত্তর: ৫টি
12. ট্রান্সমিশন সিস্টেম হলো?
মাধ্যম
প্রাপক
প্রেরক
গন্তব্য
সঠিক উত্তর: প্রেরক
13. নিম্নের কোনটি কম্পিউটারের ডিজিটাল সংকেতকে অ্যানালগ সংকেতে পরিণত করে টেলিফোন যোগাযোগ ব্যবস্থার দ্বারা গ্রাহকের নিকট প্রেরণ করে? মডুলেটর
ডিমডুলেটর
ডিকোডার
মডেম
সঠিক উত্তর: মডুলেটর

14. নিম্নের কোনটি তথ্যের উৎস?
কম্পিউটার
টেলিফোন
স্যাটেলাইট
টেলিফোন লাইন
সঠিক উত্তর: কম্পিউটার

15. ডিজিটাল সংকেতকে অ্যানালগ সংকেতে রুপান্তরিত করার প্রক্রিয়াকে কী বলে? রাউটিং
মডুলেশন
সুইচিং
নেটওয়ার্কিং
সঠিক উত্তর: মডুলেশন
16. কম্পিউটারের পারস্পারিক যোগাযোগ কে কী বলে?
মডেম
নেটওয়ার্ক
ফ্যাক্স
হাইওয়ে
সঠিক উত্তর: নেটওয়ার্ক
17. ডেটা ট্রান্সমিশন রেটকে কী বলে?
ব্যান্ড
উইডথ
ব্যান্ড উইডথ
ভয়েস ব্যান্ড
সঠিক উত্তর: ব্যান্ড উইডথ

18. ডেটা ট্রান্সমিশন গতি কত প্রকার?
২টি
৩টি
৪টি
৫টি
সঠিক উত্তর: ৫টি

19. নিচের কোনটি কমিউনিকেশন সিস্টেম বহির্ভূত?
যোগাযোগ নেটওয়ার্ক
তথ্য বিনিময় সিস্টেম
তথ্য বিনিময় কেন্দ্র
গাড়ি চালানো
সঠিক উত্তর: তথ্য বিনিময় সিস্টেম

20. ন্যারো ব্যান্ডের গতি-
9600bps
45bps
1 gbps
5 gbps
সঠিক উত্তর: 45bps

21. Bandwidth এর একক কোনটি?
Hz
Cycle/sec
bit/s
m/s
সঠিক উত্তর: bit/s

22. ডেটা ট্রান্সমিশন পদ্ধতিকে কয় ভাগে ভাগ করা হয়?
২টি
৩টি
৪টি
৫টি
সঠিক উত্তর: ৩টি

23. ডেটা রিসিভার A এর জন্য ব্যবহৃত বাইনারি মান কোনটি?
10000001
1000001
01000010
11000001
সঠিক উত্তর: 1000001
24. নিম্নের কোনটির প্রেরক স্টেশনের সাথে একটি প্রাইমারী স্টোরেজের প্রয়োজন হয়?
সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন
আইসোক্রোনাস ট্রান্সমিশন
অ্যাসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন
আইসিক্রোনাস ট্রান্সমিশন
সঠিক উত্তর: সিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন

25. ডেটা প্রবাহের দিকে উপর ভিত্তি করে ডেটা ট্রান্সমিশন মোডকে কয় ভাগে ভাগ করা যায়?
২ ভাগে
৩ ভাগে
৪ ভাগে
৫ ভাগে
সঠিক উত্তর: ৩ ভাগে

26. প্রেরক থেকে যে ডেটা গ্রাহকের ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার ট্রান্সমিট হয় তাকে কী বলে?
এসিনক্রোনাস
আইসোক্রোনাস
সিনক্রোনাস
বিসিনক্রোনাস
সঠিক উত্তর: এসিনক্রোনাস

27. ডেটা কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে ডেটা প্রবাহের দিককে কী বলে?
ট্রান্সমিশন স্পীড
ডেটা কমিউনিকেশন
কম্পিউটার মোড
ডেটা ট্রান্সমিশন মোড
সঠিক উত্তর: কম্পিউটার মোড

28. যে ডেটা ট্রান্সমিশন সিস্টেমে প্রেরক থেকে ডেটা গ্রাহকের ক্যারেক্টার বাই ক্যারেক্টার ট্রান্সমিট হয় তাকে কী বলে?
সিনক্রোনাম ট্রান্সমিশন
এসিনক্রোনাম ট্রান্সমিশন
আইসোক্রানাস ট্রান্সমিশন
বিসিনক্রোনাস ট্রান্সমিশন
সঠিক উত্তর: এসিনক্রোনাম ট্রান্সমিশন

29. ডেটা শুধু এক দিকে প্রেরণ করা যায় কোন মোডে?
হাফ ডুপ্লেক্স
সিমপ্লেক্স
ডুপ্লেক্স
ফুল ডুপ্লেক্স মোড
সঠিক উত্তর: সিমপ্লেক্স

30. সিমপ্লেক্স মোডের উদাদহরণ-
মোবাইল ফোন
টেলিফোন
ওয়াকিটকি
রেডিও
সঠিক উত্তর: রেডিও

31.ইন্টারনেটে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় ডেটা ট্রান্সফারের কোন পদ্ধতিতে?
Synchronous
Isochronous
Asychronous
কোনাটিই নয়।
সঠিক উত্তর: Asychronous

32. সিনক্রোনাস ডেটা ট্রান্সমিশনে প্রতি প্যাকেট কমপক্ষে কতটি ক্যারেক্টার থাকে?
৮০-১৩২ ক্যারেক্টার
৮০-১২০ ক্যারেক্টার
১২০-১৩২ ক্যারেক্টার
১০০-১১২ ক্যারেক্টার
সঠিক উত্তর: ৮০-১৩২ ক্যারেক্টার

33. নেটওয়ার্ক লাইন ইন্টারফেসের ওপর ভিত্তি করে ডেটা ট্রান্সমিশন পদ্ধতিকে কয়টি ভাগে ভাগ করা যায়?
5 ভাগে
৪ ভাগে
৩ ভাগে
২ ভাগে
সঠিক উত্তর: ২ ভাগে

34. কেবল একদিকে ডেটা প্রেরনের মোডকে কী বলে?
ডুপ্লেক্স
হাফ ডুপ্লেক্স
ফুল ডুপ্লেক্স
সিমপ্লেক্স
সঠিক উত্তর: সিমপ্লেক্স

35. টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবলের ফ্রিকোয়েন্সি রেঞ্জ কত?
0-5GHz
5-10MHz
0-5MHz
0-5KHz
সঠিক উত্তর: 0-5KHz

36. টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবল তৈরী করা হয় কী ধরনের উপাদান দিয়ে?
Iron
Copper
Glass
Gold
সঠিক উত্তর: Copper

37. STP ক্যাবলের সর্বোচ্চ ব্যান্ডউইথড কত?
1Mbps
10Mbps
2Mbps
20Mbps
সঠিক উত্তর: 20Mbps

38. UTP ক্যাবলের কতটি কপার তার থাকে?
২টি
৪টি
৮টি
১৬টি
সঠিক উত্তর: ৮টি

39. ডেটা কমিউনিকেশনে কয় প্রকারের মাধ্যম রয়েছে?
২প্রকার
৩প্রকার
৪প্রকার
৫প্রকার
সঠিক উত্তর: ২প্রকার

40. কোনটি স্বল্প দূরত্বের নেটওয়ার্ক স্থাপনে ব্যবহার করা হয়?
উপগ্রহ
রেডিওওয়েভ
ক্যাবল
স্যাটেলাইট
সঠিক উত্তর: ক্যাবল

41. নিম্নের কোনটির মাধ্যমে একই সময়ে অনেকগুলো দেশের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করা সম্ভব?
শেয়ার টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবল
খ টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবল
স্যাটেলাইট মাইক্রোওয়েভ
টেবেস্টোরিয়েল মাইক্রোওয়ব।
সঠিক উত্তর: স্যাটেলাইট মাইক্রোওয়েভ

42. STP- এর পূর্ণরুপ কী?
Share Twisted Pair
Shielded Twin Pair
Shielded Tower phone
Shielded Twisted Pair
সঠিক উত্তর: Shielded Twisted Pair

43. নিম্নে কোনটিতে ডেটা ট্রান্সমিশন হার 100mbps থেকে 2gbps?
টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবল
আনশিল্ডেড টুইস্টেড পেয়ার ক্যাবল
কো-এক্সিয়াল ক্যাবল
অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল।
সঠিক উত্তর: অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল।

44. অপটিক্যাল ফাইবার জ্যাকেটের ব্যাস কোনটি?
200µm
300 µm
400 µm
100 µm
সঠিক উত্তর: 400 µm

45. অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল কমিউনিকেশন ব্যবস্থায় তিনটি অংশে দুটি হলো প্রেরক যন্ত্র ও গ্রাহক যন্ত্র এবং অপরটি-
মডেম
মাধ্যম
তার
ডিটেক্টর
সঠিক উত্তর: মাধ্যম

46. রেডিও তরঙ্গ সংগঠিত হয় কোথায়?
মোটামুটি দূরত্ব
কয়েক কিলোমিটার
খুবই অল্প দূরত্ব
১ কিলোমিটার
সঠিক উত্তর: কয়েক কিলোমিটার

47. কোন যন্ত্রটি নিম্ন শক্তিসম্পন্ন রেডিও সঞ্চালনে ডেটা পরিবর্তন করতে সক্ষম?
ব্লুটুথ
রেডিও
টেলিভিশন
কম্পিউটার
সঠিক উত্তর: ব্লুটুথ

48. কোন প্রযুক্তি ব্যবহার করে শতাধিক ব্যবহারকারী একক বেস স্টেশন ব্যবহার করতে পারে?
Wi-Max
Wifi
Bluetooth
GPS
সঠিক উত্তর:( Wi-Max

49. বেতার তরঙ্গের সীমা কত?
20km-30km
1km-50km
1mm-10km
50km-100km
সঠিক উত্তর: 1mm-10km

50. ভূ-পৃষ্ঠে ট্রান্সমিটার বসানো থাকে কোন ওয়েভে?
স্যাটেলাইট মাইক্রোওয়েভ
রেডিও মাইক্রোওয়েভ
টিভি মাইক্রোওয়েভ
টেরিস্ট্রিয়াল মাইক্রোওয়েভ
সঠিক উত্তর: টেরিস্ট্রিয়াল মাইক্রোওয়েভ

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

আইসিটি অধ্যায় ১.৩ : বিশ্ব ও বাংলাদেশ প্রেক্ষিত MCQ2

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের এইচ.এস.সি বা উচ্চমাধ্যমিকের আইসিটি অধ্যায় ১.৩:বিশ্ব ও বাংলাদেশ প্রেক্ষিত এর বহুনির্বাচনি প্রশ্ন (51-100) খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করা হলো

অনলাইন এক্সামের বিভাগসমূহ:
জে.এস.সি
এস.এস.সি
এইচ.এস.সি
সকল শ্রেণির সৃজনশীল প্রশ্ন (খুব শীঘ্রই আসছে)
বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি (খুব শীঘ্রই আসছে)
বিসিএস প্রিলি টেষ্ট

আইসিটি অধ্যায় ১.৩ : বিশ্ব ও বাংলাদেশ প্রেক্ষিত

বহুনির্বাচনি প্রশ্ন (51-100)

51. ডেটা কমিউনিকেশনের কয়টি বৈশিষ্ট্যের উপর নির্ভর করে?
ক. ১ টি
খ. ২ টি
গ. ৩ টি
ঘ. ৪ টি
উত্তর: খ. ২ টি

52. কোন যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতির মাধ্যমে বিশ্বগ্রাম প্রতিষ্ঠার চিন্তাধারাকে উদ্বুদ্ধ করে?
ক. ইন্টারনেট
খ. টেলিফোন
গ. মোবাইল
ঘ. টেলিভিশন
উত্তর: খ. টেলিফোন

http://www.webschoolbd.com
53. নিচের কোনটি বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা?
ক. শিক্ষা
খ. যোগাযোগ
গ. চিকিৎসা
ঘ. কৃষি
উত্তর: ক. শিক্ষা

54. নিচের কোনটি পরিবর্তনের মাধ্যমে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নতি করা সম্ভব?
ক. শিক্ষা
খ. প্রযুক্তি
গ. শিল্প
ঘ. বিশ্বগ্রাম
উত্তর: খ. প্রযুক্তি

55. অনলাইন পদ্ধতিতে কেনাবেচাকে বলা হয়?
ক. ই-মেইল
খ. ই -কমার্স
গ. ই-পেজ
ঘ. ই-মোবাইল
উত্তর: খ. ই -কমার্স

56. বর্তমানে সময়ে কিসের মাধ্যমে টাকা পাঠানো হয় জনপ্রিয় হতে শুরু করেছে?
ক. মোবাইল
খ. ডাকঘর
গ. কম্পিউটার
ঘ. মানিঅর্ডার
উত্তর: ক. মোবাইল

57. চাকরির ক্ষেত্রে তথ্য প্রযক্তি প্রভাবে নৈতিকভাবে উদ্বিগ্ন হতে শুরু করেছে?
ক. বেকারত্ব
খ. বেতন কম
গ. ধীর গতিশীলতা
ঘ. উৎপাদনশীলতা হ্রাস
উত্তর: ক. বেকারত্ব

58. নিচের কোনটি চাকরির ওয়েব সাইট?
ক. http://www.bdjobs.com
খ. http://www.bikroly.com
গ. http://www.amazon.com
ঘ. http://www.ebay.com
উত্তর: ক. http://www.bdjobs.com

59. ইন্টারনেটের কর্মসংস্থানের সুযোগকে কী বলা হয়?
ক. ই -মার্কেটিং
খ. ই- কমার্স
গ. ই – বিজনেস
ঘ. আউটসোর্স‌িং
উত্তর: ঘ. আউটসোর্স‌িং

60. কোন শিক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে খ্যাতনামা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে লেখাপড়ার যোগাযোগ রক্ষা করা সম্ভব হচ্ছে?
ক. মোবাইল
খ. টেলিভিশন
গ. অন-লাইন
ঘ. ইন্টারনেট
উত্তর: গ. অন-লাইন

61. বর্তমানে কোন ব্যবস্থায় একজন ছাত্র ক্লাসে না গিয়ে ও ঘরে বসে যে কোন ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারেন?
ক. ইন্টারনেট
খ. শিক্ষকের প্রত্যক্ষ তত্ত্ববধানে
গ. যোগাযোগ
ঘ. ই – কমার্স
উত্তর: ক. ইন্টারনেট

62. Khanacademy.org নামক ওয়েবসাইটির প্রতিষ্ঠাতা কে?
ক. সোহেল খান
খ. সালমান খান
গ. ফিরোজ খান
ঘ. জোবায়ের খান
উত্তর: খ. সালমান খান

63. শিক্ষার জন্য সহজতর হচ্ছে –
ক. সিডি
খ. বই
গ. নোট
ঘ. ই-বুক
উত্তর: ঘ. ই-বুক

64. নিচের কোন ওয়েব সাইটির মাধ্যমে বিশ্বের যে কোন স্থান হতে অনলাইনে স্বাস্থ্যসেবা পাওয়া যায়?
ক. www .bikroy .com
খ. http://www.khanacademy .com
গ. http://www.softpedia.com
ঘ. http://www.treatmentonline.com
উত্তর: ঘ. http://www.treatmentonline.com

65. টেলিমেডিসিন সেবায় বর্তমানে বাংলাদেশে বেসরকারী পর্যায়ে কয়টি হাসপাতাল রয়েছে?
ক. ১টি
খ. ২টি
গ. ৩টি
ঘ. ৪টি
উত্তর: খ. ২টি

66. গবেষনা মানুষের কোন অনুসন্ধান প্রক্রিয়া?
ক. বুদ্ধিবৃত্তিক
খ. জ্ঞানমুলক
গ. অনুধাবনমূলক
ঘ. বুদ্ধিমূলক
উত্তর: ক. বুদ্ধিবৃত্তিক

67. গবেষনাপত্র তৈরী করা সহজতর হচ্ছে কোনটির মাধ্যমে?
ক. সিডি
খ. ই- বুক
গ. নোট
ঘ. বই
উত্তর: ক. সিডি

68. সকল বৈজ্ঞানিক কর্মকান্ড কিসের ওপর নির্ভরশীল-
ক. কম্পিউটার
খ. আবহাওযা
গ. যোগাযোগ
ঘ. তথ্য
উত্তর: ক. কম্পিউটার

69. অফিস অটোমেশনের ফলে অফিসের-
ক. কাজের গতি কমে
খ. অলসতা বাড়ে
গ. গতি বৃদ্ধি পায়
ঘ. খরচ বাড়ে
উত্তর: গ. গতি বৃদ্ধি পায়

70. একটি অফিসের বিভিন্ন শাখার মধ্যে তথ্য আদান প্রদান করা যায় কোনটির মাধ্যমে?
ক. কম্পিউটার
খ. নেটওয়ার্ক
গ. মোবাইল
ঘ. প্যাকেজ
উত্তর: ক. কম্পিউটার

71. বাড়ীর বিভিন্ন ধরনের ডিজাইনের জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার কেনটি?
ক. CAD
খ. MS EXCEL
গ. ORACAL
ঘ. POWER POINT
উত্তর: ক. CAD

72. বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের পাশাপাশি কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রে কোনটি সহায়তা করবে?
ক. আউট সোর্সিং
খ. কৃষি কাজ
গ. ব্যবসায়
ঘ. চাকরি
উত্তর: ক. আউট সোর্সিং

73. IP ADDRESS কী?
ক. ইন্টারনেটের ঠিকানা
খ. ইন্টারনেটের ঠিকানা
গ. ইন্টারনেটের স্পেস
ঘ. ইন্টারনেটের স্পিড
উত্তর: ক. ইন্টারনেটের ঠিকানা

74. অনলাইনের মাধ্যমে ব্যাবসায়কে কী বলে?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-ব্যাংক
গ. ই-গভর্নেস
ঘ. ই-বাজার
উত্তর: ক. ই-কমার্স

75. ই-কমার্স কোন ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলেছে?
ক. মহাকাশ অভিযান
খ. চিকিৎসা
গ. বাসস্থান
ঘ. ব্যাবসায় বানিজ্য
উত্তর: ঘ. ব্যাবসায় বানিজ্য

76. যোগাযোগ ব্যবস্থার অবণর্নীয় পরিবর্তনের একটি মাইলফলক কেনটি?
ক. বাস
খ. ট্রেন
গ. বিশ্বগ্রাম
ঘ. ফোন
উত্তর: ঘ. ফোন

77. বিশ্বগ্রামে ব্যবসায়-বাণিজ্যের সরকরাহাকৃত মালামাল পর্যবেক্ষণ করার জন্য নিচের পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-মেইল
গ. ই-লর্নিং
ঘ. ই-ট্রাকিং
উত্তর: ক. ই-কমার্স

78. ব্যবসায় বানিজ্যের আধুনিকতম সংস্করণ নিচের কোনটি?
ক. ই-কমার্স
খ. ই-মেইল
গ. ই-লর্নিং
ঘ. ই-ট্রাকিং
উত্তর: ক. ই-কমার্স

79. স্টক একচেঞ্জ নিচের কেন পদ্ধতিতে কেনাবেচা করে?
ক. ই-ট্রাকিং
খ. ই-মেইল
গ. ই-কমার্স
ঘ. ই-লার্নিং
উত্তর: গ. ই-কমার্স

80. E-Payment System-এর সহায়তায় নিচের কোন কাজটি করা হয়?
ক. মূল্য পরিশোধ
খ. মূল্য নির্ধারন
গ. পণ্যের বিপনন
ঘ. ই-বুকিং
উত্তর: ক. মূল্য পরিশোধ

81. বিশ্বের এক প্রান্ত হতে অন্যপ্রান্তে কোন পণ্যের অর্থ পরিশোধে কোন মাধ্যম ব্যবহৃত হয়?
ক. পে-অর্ডার
খ. ক্রেডিট কার্ড
গ. চেক
ঘ. নগদ ক্যাশ
উত্তর: খ. ক্রেডিট কার্ড

82. শিক্ষাক্ষেত্রে নিম্নের কোনটি অধিক কাজ প্রযোজ্য?
ক. ইন্টারনেট
খ. ব্লগ
গ. আউটসোর্সিং
ঘ. ই- কমার্স
উত্তর: ক. ইন্টারনেট

83. Blog কী
ক. অনলাইন পত্রিকা
খ. দিনলিপি
গ. ব্যক্তিকেন্দ্রিক পত্রিকা
ঘ. ইন্টারনেট ব্যবস্থা
উত্তর: গ. ব্যক্তিকেন্দ্রিক পত্রিকা

84. যিনি ব্লগে পোষ্ট করেন তাকে কী বলে?
ক. ব্লগার
খ. ব্লগারিজম
গ. ব্লগ
ঘ. ব্লগসুপার
উত্তর: ক. ব্লগার

85. যেখানে বহুসংখ্যক ইন্টারনেট ব্যবহারকারী তাদের মতামত ও লেখনীয় মাধ্যমে একটি প্লাটফর্ম গড়ে তোলেন সেটি কী?
ক. ব্লগ
খ. ইন্টানেট
গ. পত্রিকা
ঘ. সামাজিক ব্লগ
উত্তর: ঘ. সামাজিক ব্লগ

86. সংবাদ কী ?
ক. তথ্যের সমষ্টি
খ. তথ্য
গ. গবেষনা
ঘ. বৈজ্ঞানিক সূত্র
উত্তর: ক. তথ্যের সমষ্টি

87. ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বের গ্রাহকগণ কম্পিউটারের পর্দায় সংবাদপত্র পড়েন বা পিন্ট করেন তাকে কী বলে?
ক. ই -কমার্স
খ. ই -নিউজ
গ. ই-লার্নিং
ঘ. ই-মেইল
উত্তর: খ. ই -নিউজ

88. বিশ্ব সামাজিক আন্তঃযোগাযোগ ব্যবস্থা কোনটি ?
ক. সংবাদ
খ. টিভি
গ. ফেসবুক
ঘ. মোবাইল
উত্তর: গ. ফেসবুক

89. ফেসবুকের স্থাপতি কে?
ক. বিল গেটস
খ. মার্ক এন্ডিসন
গ. মার্ক জুকারবার্গ
ঘ. মাইকেল জুকারবার্গ
উত্তর: গ. মার্ক জুকারবার্গ

90. রোবটের কাজ কী?
ক. প্রোগ্রাম চালনা
খ. প্রোগ্রাম উন্নয়ন
গ. প্রোগ্রাম নিয়ন্ত্রন
ঘ. প্রতিকূল কাজে সাহায্য করা
উত্তর: ঘ. প্রতিকূল কাজে সাহায্য করা

91. নিচের কোনটি বিনোদনের উল্লেখ্যযোগ্য মাধ্যম?
ক. সংবাদ পত্র
খ. রেডিও
গ. টেলিভিশন
ঘ. কম্পিউটার
উত্তর: গ. টেলিভিশন

92. কোন খেলার সরাসরি সম্প্রচার টেলিভিশনের বিকল্প হিসেবে আমারা কী ব্যবহার করতে পারি?
ক. ইন্টারনেট
খ. রেডিও
গ. সংবাদপত্র
ঘ. ম্যাগাজিন
উত্তর: ক. ইন্টারনেট

93. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কীসে নিয়ন্ত্রিত হয়-
ক. ইন্টারনেট
খ. বেতার নিয়ন্ত্রিত
গ. কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত
ঘ. রিয়েলিটি নির্ভর
উত্তর: গ. কম্পিউটার নিয়ন্ত্রিত

94. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি কী
ক. মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার
খ. কাল্পিনিক মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার
গ. কাল্পিনিক ব্যবহার
ঘ. কম্পিউটার ব্যবহার
উত্তর: খ. কাল্পিনিক মাল্টিমিডিয়া ব্যবহার

95. বাস্তব নয় কিন্তু ব্যবহারকারী নিচের কোনটিকে বাস্তব মনে করেন?
ক. ত্রি-মাত্রিক ছবি
খ. বিহেভিয়ার
গ. টিভিল ছবি
ঘ. রিয়েলিটি শো
উত্তর: ক. ত্রি-মাত্রিক ছবি

96. ভার্চুয়াল রিয়েলিটি হলো অ্যাপ্লিকেশন তৈরী জন্য কোন উপাদানটি নিয়ে কাজ করতে হয়?
ক. কম্পিউটার
খ. বিহেভিয়ার
গ. তথ্য ব্যবস্থা
ঘ. এনভারনেট
উত্তর: খ. বিহেভিয়ার

97. আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স কী?
ক. নলেজ বেজড সিস্টেম
খ. নলেজ সিস্টেম
গ. কম্পিউটার সিস্টেম
ঘ. ইন্টারনেট সিস্টেম
উত্তর: ক. নলেজ বেজড সিস্টেম

98. বায়োইনফরমেট্রিক্স কী?
ক. কম্পিউটার তথ্য গবেষনা
খ. ডাটাবেজ প্রোগ্রামিং
গ. গানিতিক তথ্য বিশ্লেষন
ঘ. জীববিদ্যা বিষয়ক তথ্য প্রক্রিাকরন
উত্তর: ঘ. জীববিদ্যা বিষয়ক তথ্য প্রক্রিাকরণ

99. কম্পিউটার অনৈতিক ব্যবহারে সবচেয়ে বড় ক্ষতি হয়?
ক. ব্যবহারকারীর কম্পিউটারে ভাইরাস ছড়াতে হয়
খ. প্রযুক্তির উন্নয়নের ধারা ব্যাহত হয়
গ. কোম্পানির মুনাফা কমে যায়
ঘ. জেল-জরিমানার ঝুকি থাকে
উত্তর: গ. কোম্পানির মুনাফা কমে যায়

100. ভার্চুয়াল রিয়েলিটিতে কী ধরনের ইমেজ তৈরী হয়?
ক. একমাত্রিক
খ. দ্বি মাত্রিকা
গ. ত্রি মাত্রিক
ঘ. বহুমাত্রিক
উত্তর: গ. ত্রি- মাত্রিক

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd


বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – 01571769905 (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

আইসিটি অধ্যায়- ৪ : ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি ও এইচ.টি.এম.এল

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ আপনাদের জন্য থাকছে ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি ও এইচ.টি.এম.এল । ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি ও এইচ.টি.এম.এল সংক্রান্ত প্রায়ই পরীক্ষায় প্রশ্ন আসতে দেখা যায় । চলুন দেখে নেই

আইসিটি অধ্যায়- ৪ : ওয়েব ডিজাইন পরিচিতি ও এইচ.টি.এম.এল
Introduction to Web Design & HTML

কুইজ প্রশ্ন ও উত্তর

০১. ওয়েব পেইজ কী?
উত্তরঃ ওয়েব পেজ হলো এক ধরণের ওয়েব ডকুমেন্ট যা World Wide Web(WWW) ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের দেখার জন্য বিভিন্ন দেধের সার্ভারে রাখা ফাইলকে ওয়েব পেজ বলে।
০২. ওয়েব কী?
উত্তরঃ ওয়েব হলো ইন্টারনেট ব্যাবহার করার একটি পথ বা ইন্টারনেটের একটি অ্যাপ্লিকেশন।
০৩. ডোমেইন নেম কী?
উত্তরঃ ক্যারেক্টার ফর্মে দেওয়া কম্পিউটারে এরুপ নামকে ডোমেইন নেম বলে।
http://www.webschoolbd.com
০৪. টপ লেভেল ডোমেইন কাকে বলে? উত্তরঃ ডোমেইন নেমের ডট এর পরের অংশটিকে টপ লেভেল ডোমেইন বলা হয়।
০৫. edu দ্বারা কী বোঝায়?
উত্তরঃ edu দ্বারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বুঝায়।
০৬. ওয়েব পেইজ ডিজাইন কী?
উত্তরঃ ওয়েব পেজ হলো সারা বিশ্বে ইন্টারনেটের মাধ্যমে যুক্ত বিভিন্ন সার্ভারে (বড় ক্ষমতাসম্পন্ন কম্পিউটার) রক্ষিত ফাইল, যা হাইপার টেক্সট মার্কআপ ল্যাংগুয়েজের (HTML) ওপর ভিওি করে তৈরিকৃত ডকুমেন্ট। ওয়েব ডিজাইন হলো নির্দিষ্ট বিষয় নির্ধারণ, গ্রাফিক্স ডিজাইন এবং ওয়েবপেজ প্রদর্শণ-এ তিনটি বিষয়ের সম্মিলিত রূপ।
০৭. ওয়েব সাইটের কাঠামো কাকে বলে?
উত্তরঃ যে অবকাঠামোতে একটি ওয়েবসাইটের সকল তথ্য বা বিষয়বস্ত উপস্থাপন করা হয় তাকে ওয়েবসাইটের কাঠামো বলো।সমগ্র বিশ্বের নেটওয়ার্কের সাথে তোমার ওয়েবসাইটের নেটওয়ার্কও একই বন্ধনে বাঁধা।
০৮. মূল পেইজ কী?
উত্তরঃ মূল পেইজ বা Home Page বলতে আমরা বুঝি, কোন ওয়েব সাইটে প্রবেশের পর প্রথম যে পেজ আমরা দেখতে পাই তাই হলো মূল পেইজ বা Home Page । ০৯. ডোমেইন নেম কী?
উত্তরঃ ডোমেইন নেম (Domain Name) আইপি অ্যাড্রেস নাম্বার দ্বারা লিখিত হয়। আইপি অ্যাড্রেসের জন্য সংখ্যা মনে রাখা কষ্টকর। তাই আইপি অ্যাড্রেসকে সহজে ব্যবহারযোগ্য করার জন্য ইংরেজী অক্ষরের কোন নাম ব্যবহার করা হয়। ক্যারেক্টার ফর্মের দেওয়া কম্পিউটারের এরূপ নামকে ডোমেইন নেম বলা হয়।
১০. Browser কী?
উত্তরঃ ওয়েব ব্রাউজার হল এমন একটি সফটওয়্যার যার মাধ্যমে একজন ইন্টারনেট ব্যবহারকারী যেকোন ওয়েব-পেইজ, ওয়ার্ল্ড-ওয়াইড-ওয়েবে(W.W.W.) অথবা লোকাল-এরিয়া-নেটওয়ার্কে অবস্থিত কোন ওয়েব-সাইটের যেকোনো তথ্য দেখতে ও অনুসন্ধান করতে পারে।এক কথায় বলা যায় ওয়েব ব্রাউজার হল একটা ওয়েব পেজ দেখার বাহক মাত্র।
১১. ফরম্যাটিং কাকে বলে?
উত্তরঃ সঠিক এবং উপস্থাপন যোগ্য লেখা বা টেক্সটকে সঠিক আকৃতি বা রূপ প্রদান করে, দৃষ্টিনন্দন করে, উপস্থাপন করে, একটি ওয়েব পেজকে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টাকে ফরম্যাটিং বলে।
১২. হাইপারলিং কী?
উত্তরঃ ওয়েবের ভাষায় বলতে গেলে হাইপারলিং হলো ওয়েবের একটি রিসোর্স অবস্থিত কোন রেফারেন্স (কোন ঠিকানা) যার সাহায্য পাঠক সরাসরি বা স্বতঃর্স্ফুতভাবে তার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছাতে পারবে।
১৩. www কী?
উত্তরঃ সমস্ত উন্মুক্ত ওয়েবসাইটগুলোকে সমষ্টিগত ভাবে “World Wide Web” বা WWW বা বিশ্বব্যাপী জাল নাম দেওয়া হয়েছে। WWW হলো পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সার্ভারে রাখা পরস্পর সংযোগযোগ্য ওয়েব পেইজ।
১৪. ওয়েবসাইট কাকে বলে?
উত্তরঃ কোনো ওয়েব সার্ভারের রাখা ওয়েব পেইজ, ছবি, অডিও, ভিডিও ও অন্যান্য ডিজিটাল তথ্যের সমষ্টিকে ওয়েবসাইট বলে।
১৫. স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট কাকে বলে?
উত্তরঃ যে সকল ওয়েবসাইটের ডেটার মান ওয়েবপেজ লোডিং বা চালু করার পর পরিবর্তন করা যায় না তাকে স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট বলে।
১৬. স্ট্যাটিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ কী?
উত্তরঃ স্ট্যাটিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ “htm” অথবা “html”।
১৭. ডাইনামিক ওয়েবসাইট কাকে বলে?
উত্তরঃ যে সকল ওয়েবসাইটের ডেটার মান ওয়েবপেজ লোডিং বা চালু করার পর পরিবর্তন করা যায় না তাকে ডাইনামিক ওয়েবসাইট বলে।
১৮. ডাইনামিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ কী?
উত্তরঃ ডাইনামিক ওয়েব পেইজের ফাইলের নামের বর্ধিতাংশ PHP, ASP, JSP।
১৯. বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ওয়েবসাইটকে কয়ভাগে ভাগ করা যায়?
উত্তরঃ বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী ওয়েবসাইটকে চারভাগে ভাগ করা যায়।
২০. লিনিয়ার স্ট্রাকচার কী?
উত্তরঃযখন কোন ওয়েবসাইটের পেজগুলো ক্রমানুসারে করার স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে লিনিয়ার স্ট্রাকচার বলে।
২১. ট্রি বা হায়ারারকিক্যাল স্ট্রাকচার কী?
উত্তরঃযখন কোন ওয়েবসাইটের কাঠামোতে সমস্ত ডকুমেন্টের পূর্নাঙ্গ চিত্র সংক্ষিপ্ত আকারে থাকে সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে ট্রি বা হায়ারারকিক্যাল স্ট্রাকচার বলে।
২২. হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার কী?
উত্তরঃযখন একাধিক কাঠামো ব্যবহার করে ওয়েবসাইট ডিজাইন করা হয় সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার বলে।
২৩. ওয়েব লিঙ্ক বা নেটওয়ার্ক স্ট্রাকচার কী?
উত্তরঃযখন ওয়েবসাইটে প্রতিটি পেইজের মধ্যে অন্য পেইজগুলো নিঙ্ক করা থাকে সেই স্ট্রাকচার বা কাঠামোকে হাইব্রিড বা মিশ্র স্ট্রাকচার বলে।
২৪. ইন্টারনেট বুলেটিন বোর্ড কী?
উত্তরঃ WWW কে ইন্টারনেটের বুলেটিন বোর্ড বলা হয়।
২৫. HTML কী?
উত্তরঃ ওয়েব পেইজ তৈরিতে একটি সাধারন এবং সবচেয়ে বহুল ল্যাঙ্গুয়েজ হচ্ছে HTML। ১৯৮০ সালে টিম বার্নারস লি HTML রচনা করেন। তখন শুধুমাএ একটি পাতার সাথে আর একটি পাতার সংযোগ ঘটানো হতো। ১৯৮৫ সালে এ পদ্ধতির নাম ছিল SGML । পরবর্তী সময়ে এ ভাষার উন্নতির সাথে সাথে এতে নির্মিত ফাইল পড়ার উপযোগী ব্রাউজারের উন্নতি ঘটতে লাগলো বেশ দ্রুত। প্রথম দিকে Linux, VMS অপারেটিং সিস্টেমে। ১৯৯৫ সালে মাইক্রোসফ্ট কোম্পানি Internet Explorer বাজারজাত করেন ওয়েব পেইজ ব্রাউজিং এর জন্য।
২৬. HTML এর মৌলিক বিষয় কয়টি ও কী কী?
উত্তরঃ HTML এর মৌলিক বিষয় ২টি। যথা – ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউট।
২৭. HTML 4.0 এর সংস্করন কবে বের হয়?
উত্তরঃ HTML 4.0 এর সংস্করন কবে April 1998 তে বের হয়।
২৮. কে HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন?
উত্তরঃ Sir Tim Berners Lee ওয়েব ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন।
২৯. কত সালে HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন?
উত্তরঃ ১৯৮৯ সালে Sir Tim Berners Lee ওয়েব ডিজাইন ল্যাংগুয়েজ HTML নিয়ে চিন্তা ভাবনা করেন।
৩০. ট্যাগ কী?
উত্তরঃ ফাইল তৈরী করা হয় কিছু ট্যাগ ও অ্যাট্রিবিউটের সমম্বয়ে। ট্যাগ যেকোন নির্দেশন সুনির্দিষ্ট করে দেয়।
৩১. অ্যাট্রিবিউ কী?
উত্তরঃ ট্যগের নির্দেশন সুনির্দিষ্টভাবে নির্ধারণ করে অ্যাট্রিবিউট।
৩২. ফন্ট ফ্যামিলি কী?
উত্তরঃ একাধিক ফন্ট একই নামের ভিন্নতর সংস্করন হিসেবে প্রকাশ করলে একটি ফন্ট ফ্যামিলি সৃষ্টি হয়।
৩৩. ওপেনিং ট্যাগ কী বোঝায়?
উত্তরঃ HTML কে ট্যাগের ভাষাও বলা হয় কারণ বিভিন্ন ট্যাগের সমন্বয়েই ডকুমেন্ট তৈরি হয়। প্রতিটি ট্যাগ তার নিজস্ব নাম অনুসারণ করে কৌনিক (<>) ব্রাকেটে শুরু বা ওপেন করতে হয় এবং একে শুরু বা ওপেনিং ট্যাগ বলে।
৩৪. হাইপারলিংক কী?
উত্তরঃ হাইপারলিংক হলো একটি ওয়েবপেইজের কোন অংশের সাথে বা পেইজের অন্য অন্যান্য পেইজের সংযোগ স্থাপন করে ।
৩৫. ওয়েব ব্রাউজিং কী?
উত্তরঃ www হলো পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সার্ভারে রাখা পরস্পর সংযোগযোগ্য ওয়েব পেইজ। এই ওয়েব পেইজ পরিদর্শন করাকে ওয়েব ব্রাউজিং বলে।
৩৬. HTML এর পূর্ণনাম কী?
উত্তরঃ HTML এর পূর্ণনাম Hyper Text Markup ।
৩৭. URL এর পূর্ণনাম কী?
উত্তরঃ URL এর পূর্ণনাম Uniform Resource Locator ।
৩৮. URL কাকে বলে?
উত্তরঃ URL হলো কোন ওয়েব সাইটের অ্যাড্রেস কে বুঝায়।
৩৯. Search কী?
উত্তরঃ ওয়েব পেইজ থেকে কোন কিছু খোঁজাকে Search বলে।
৪০. ফ্রেম কী?
উত্তরঃ প্রতিটি HTML ডকুমেন্ট ফ্রেম বলা হয়।
৪১. ফ্রেম সেট কী?
উত্তরঃ উইন্ডোতে কীভাবে ফ্রেম বিভক্ত করা হবে তা নির্ধারণ করতে “ফ্রেম সেট” ট্যাগ ব্যবহার করা হয়।
৪২. ফ্রেম ট্যাগ কী?
উত্তরঃ HTML ডকুমেন্ট প্রতিটি ফ্রেমের মধ্যে কী রাখা হবে তা “ফ্রেম” ট্যাগ ব্যবহার করে নির্ধারণ করা হয়।
৪৩. হেডিং ট্যাগ কী? উত্তরঃ HTML হেডিং ট্যাগের মাধ্যমে ফন্টকে বড় বা ছোট রুপ দেয়া যায়। এখানে ৬টি হেডিং ট্যাগ ব্যবহার করা যায়। হেডিং ১ হচ্চে সবচেয়ে বড় এবং এর ক্রমান্বয়ে হেডিং ৬ সবচেয়ে ছোট।
৪৪. ওয়েব সাইট পাবলিশিং কী?
উত্তরঃ কোনো ওয়েব সাইটকে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়াকে ওয়েব সাইট পাবলিশিং বলে।
৪৫. পরিকল্পনা অনুযায়ী ওয়েবসাইটকে তৈরি করাকে কী বলে?
উত্তরঃ পরিকল্পনা অনুযায়ী ওয়েবসাইটকে ডিজাইন করাকে ওয়েব ডিজাইন বলে।
৪৬. ওয়েবসাইটকে তৈরি হয় কী নিয়ে?
উত্তরঃ ওয়েবসাইটকে তৈরি হয় ওয়েব পেজ নিয়ে।
৪৭. দুটি জনপ্রিয় ব্রাউজারের নাম লিখ?
উত্তরঃ দুটি জনপ্রিয় ব্রাউজারের নামঃ
১. গুগোল ক্রম
২. মজিলা ফায়ার ফক্স

৪৮. ওয়েব সার্ভার কী?
উত্তরঃ ওয়েব সার্ভার হলো বিশেষ ধরণের হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যারকে বুঝায় যার সাহায্যে ঐ সার্ভারে রক্ষিত কোন উপাত্ত বা তথ্য ইন্টারনেটের মাধ্যমে অ্যাকসেস করা যায়।

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (+8809602111125) (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

"বার" বের করার শর্টকাট টেকনিক

"বার" বের করার শর্টকাট টেকনিক
ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ আপনাদের জন্য থাকছে "বার" বের করা সংক্রান্ত অংক করার শর্টকাট টেকনিক । "বার" বের করা সংক্রান্ত অংক দিয়ে প্রায়ই পরীক্ষায় প্রশ্ন আসতে দেখা যায় । কিন্তু অনেকের কাছেই এগুলো কঠিন মনে হয় , কিন্তু কিছু টেকনিক ফলো করলে অতি সহজেই আপনি "বার" বের করা সংক্রান্ত অংক করতে পারেন । চলুন দেখে নেই "বার" বের করা সংক্রান্ত অংক করার শর্টকাট টেকনিক।

"বার" বের করার শর্টকাট টেকনিক

বার কোড: শনিবার =১, রবিবার =২, সোমবার =৩, মঙ্গলবার=৪, বুধ=৫ , বৃহস্পতিবার=৬, শুক্র= ০

সুত্র: বার = (A+B+C) ÷ 7
A=সালটির শেষের দুই ডিজিট
B= আপনি যে দিন বের করবেন সেদিন পর্যন্ত ঐ শতাব্দিতে যে কয়টা লিপ ইয়ার ছিল।
C=যে দিন বের করবেন সেদিন পর্যন্ত অই বছরে মোট যত দিন

উদাহরণ : ২০১৬ সালের ১৬ এপ্রিল কি বার ছিলো?
সমাধান: A = ১৬ B = ৪ ( ২০০০, ২০০৪, ২০০৮, ২০১২)
*উল্লেখ্য যে, ২০১৬ সালের পূর্বে যতগুলো লিপ ইয়ার ছিলো সেগুলো ধরতে হবে। ২০১৬ কেও ধরা যাবেনা।
C= ( ৩১+২৯+৩১+১৬) = ১০৭
সুতরাং ( ১৬+৪+১০৭) ÷ ৭ = ১২৭÷৭
যার ভাগশেষ ১ অতএব দিনটি ছিলো শনিবার

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (+8809602111125) (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত শর্টকাট টেকনিক

 সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত শর্টকাট টেকনিক
ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ আপনাদের জন্য থাকছে সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত অংক করার শর্টকাট টেকনিক । সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত অংক দিয়ে প্রায়ই পরীক্ষায় প্রশ্ন আসতে দেখা যায় । কিন্তু অনেকের কাছেই এগুলো কঠিন মনে হয় , কিন্তু কিছু টেকনিক ফলো করলে অতি সহজেই আপনি সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত অংক করতে পারেন । চলুন দেখে নেই সংখ্যা নির্নয় সংক্রান্ত অংক করার শর্টকাট টেকনিক।

১. প্রশ্নঃ দুইটি ক্রমিক সংখ্যার বর্গের অন্তর যদি 47 হয় তবে বড় সংখ্যাটি কত?
টেকনিক ১.
সমাধানঃ বড় সংখ্যা =(47+1)÷2=24 (উঃ)

২. দুইটি বর্গের অন্তর বা প্রার্থক্য দেওয়া থাকলে,ছোট সংখ্যাটি নির্ণয়ের ক্ষেত্রে-
টেকনিক ২. ছোট সংখ্যাটি = (বর্গের অন্তর - 1)÷2
প্রশ্নঃ দুইটি ক্রমিক সংখ্যার বর্গের অন্তর 33। ক্ষুদ্রতম সংখ্যাটি কত হবে?
সমাধানঃ ছোট সংখ্যাটি = (33-1)÷2=16 (উঃ)

৩. যত বড়....তত ছোট/ তত ছোট....যত বড় উল্লেখ থাকলে সংখ্যা নির্নয়ের ক্ষেত্রে-
টেকনিক ৩. সংখ্যাটি =সুজন (প্রদত্তসংখ্যা দুটির যোগফল)÷2
প্রশ্নঃ একটি সংখ্যা 742 থেকে যত বড় 830 থেকে তত ছোট। সংখ্যাটি কত?
সমাধানঃ সংখ্যাটি = (742+830)÷2 = 786 (উঃ)

৪. দুইটি সংখ্যার গুনফল এবং একটি সংখ্যা দেওয়া থাকলে অপর সংখ্যাটি নির্নয়ের ক্ষেত্রে-
টেকনিক ৪. সংখ্যা দুটির গুনফল÷একটি সংখ্যা
প্রশ্নঃ 2টি সংখ্যার গুনফল 2304 একটি সংখ্যা 96 হলে অপর সংখ্যাটি কত?
সমাধানঃ অপর সংখ্যাটি = (2304÷96) = 24 (উঃ)

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. …
প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (+8809602111125) (সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত)।

১৪ মার্চ বিশ্ব পাই দিবস

১৪ মার্চ বিশ্ব পাই দিবস। গাণিতিক ধ্রুবক পাই-এর সম্মানে দিবসটি পালন করা হয়। পাই দিবস কখনও কখনও ১৪ মার্চ দুপুর ১টা ৫৯ মিনিটে পালন করা হয়। এই দিন দুপুর ১টা ৫৯ মিনিট ২৬ সেকেন্ডকে পাই সেকেন্ড বলা হয়।

১৪ই মার্চই কেন বিশ্ব পাই দিবস?
আমাদের বাংলাদেশে আজ সবাই তারিখটি লিখছি ১৪/৩/২০১০ইং। কিন্তু আমেরিকাতে মাসের সংখ্যা খিলে প্রথমে তারপর বসে তারিখ আর সব শেষে বসে বছর। তাই আমেরিকাতে আজকের তারিখ লিখা হচ্ছে ৩/১৪/২০১০ইং। আমরা সবাই জানি পাই এর মান 3.141592653589……। এখানে 3.14 আর আমেরিকান ফরমেটে তারিখ 3/14, তাই ১৪ই মার্চকে বিশ্ব পাই দিবস হিসেবে পালন করা হয়। কোথাও কোথাও ১৪ই মার্চের দুপুর ১ টা ৫৯ মিনিট ২৬ সেকেণ্ডে এই পাই দিবলের সূচনা ধরা হয়। এক্ষত্রে ৩/১৪ >১>৫৯>২৬ অর্থাৎ দশমিকের পর সাতঘর পর্যন্ত মিলে যায়। তবে সবচেয়ে পারফেক্ট পাই দিবসটি চলে গেছে ১৫৯২সালের ১৪ই মার্চ সকাল ৬টা ৫৩ মিনিট৫৮ সেকেণ্ডে। সেদিনের হিসাবে ৩/১৪/১৫৯২ >৬>৫৩>৫৮, যা দশমিকের পরে এগারঘর পর্যন্ত মিলে গিয়েছিলো।
http://www.webschoolbd.com/

পাই কি?
বৃত্তের পরিধি (Circumference) এবং ব্যাস (Diameter) এর অনুপাতই (Ratio) হচ্ছে পাই । এই পাই একটি ধ্রুব সংখ্যা। যে কোনো বৃত্তের পরিধি ও ব্যাসের অনুপাত সর্বদাই সমান। একটি ছোট বৃত্ত মার্বেলের পরিধিকে ব্যাস দিয়ে ভাগ দিলে যে মান পাব, একটা বিশাল বৃত্ত সূর্যের পরিধিকে ব্যাস দিয়ে ভাগ দিলে সেই একই মান পাব। পরিধি এবং ব্যাসের এই ধ্রুবক অনুপাতটিকে গণিতের ক্ষেত্রে গ্রীক বর্নমালার ১৬তম অক্ষর ∏ দিয়ে প্রকাশ করা হয়।

পাই কেমন করে পাই
যীশু খ্রিষ্টের জন্মেরও প্রায় দুই হাজার বছর আগেই মানুষ ধরতে পেরছিলো বৃত্তের পরিধি ও ব্যাসের অনুপাত একটি ধ্রুব সংখ্যা। মিসমীয়রা এই অনুপাতকে (৪/৩)^৪ = ৩.১৬০৪৯৩৮২৭... হিসেব করতো। ব্যাবিলনীয় সভ্রতায় এই অনুপাতের মান ধরা হতো ৩১/৮ = ৩.৮৭৫ । আর আমাদের ভারতীয় উপমহাদেশের এই অঞ্চলে অনুপাতটিকে √১০ = ৩.১৬২২৭৭৬৬... ধরে কাজ চালিয়ে নিতো। বাইবেলে এই অনুপাতকে উল্লেখ করা হয়েছে ৩ হিসেবে। এর পর ১৫০ খ্রিষ্টাব্দে টলেমি ৩৭৭/১২০ হিসাব ধরেন, এই হিসাবে তিনি পাইয়ের মান দশমিকের পর তিন ঘর পর্যন্ত সঠিক পেয়েছিলেন(৩.১৪১৬৬৬৬৬৬৬......)। আর ৫০০ খ্রিষ্টাব্দে জু-জং চি দশমিকের পর ছয় ঘর পর্যন্ত সঠিক মান বের করতে সমর্থ হন ৩৫৫/১১৩ = ৩.১৪১৫৯২৯২০.....। ১৭০৬ সালে উইলিয়াম জোনস গ্রীক বর্নমালার ১৬তম অক্ষর ∏ কে বৃত্তের পরিধি ও ব্যাসের অনুপাত হিসেবে ব্যবহার করেন তার রচিত “সিমোপসিস পালামারিওরিয়াম ম্যাথেসিওস” বইতে। এখান থেকেই পাই কে আমরা পাই হিসেবে পাই।

১৭৬১ সালে লিন্ডম্যান প্রমাণ করেন পাই একটি অমূলদ সংখ্যা।

এখন আমরা বিশাল বিশাল অংক বা হিসাব চোখের নিমিশে করে ফেলতে পারি কম্পিউটারের সাহায্যে। কিন্তু যখন কম্পিউটার ছিলো না তখন গণিতবিদ উইলিয়াম রাদারফোর্ড তার সারাজীবন ব্যয় করেছেন পাইয়ের পিছনে। তিনি ১৮২৪সালে পাইয়ের মান ২০৮ঘর পর্যন্ত বের করেন, কিন্তু পরে দেখাগেলো এই মান ১৫৩ ঘরের পরে ভুল হয়েছে। এক নিমিশে তার জীবনের প্রায় অর্ধেক সময়ের কাজ ধুলোয় মিশে যায়।

Martin Zacharias Dase ছিলেন একজন মানুষ কম্পিউটার। কারণ তিনি চোখের নিমিশেই মাথার ভেতরে বিশাল বিশাল সব যোগ-বিয়োগ-গুণ-ভাগ করে ফেলতে পারতেন। Martin Zacharias Daseকে ব্যবহার করে গণিতবিদরা দুইমাসেই পাইয়ের মান ২০০ঘর পর্যন্ত বের করে ফেলেছিলেন।

আজ কম্পিউটারের যুগে পাইয়ের মান বের করা অনেক সহজ হয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত দশমিকের পর ২.৭ ট্রিলিয়ন ঘর পর্যন্ত পাইয়ের মান বের করা সম্ভব হয়েছে। অথচ পাই এর মান দশমিকের পরে মাত্র ৩৯ ঘর জানলেই বিশ্বব্রক্ষ্মণ্ডের ব্যাসার্ধ, হাইড্রোজেন পরমাণুর ব্যাসার্ধ পর্যন্ত নিখুঁতভাবে বলে দেয়া সম্ভব। তথাপি এই মুহূর্তেও হয়তো কয়েক হাজার কম্পউটার ব্যস্ত আছে এই মান আরো বেশি সংখ্যাক ঘর পর্যন্ত খেঁজে পেতে।

পাইয়ের মান ১০০১ ঘর পর্যন্তঃ
3.1415926535897932384626433832795 028841971693993751058209749445923 078164062862089986280348253421170 679821480865132823066470938446095 505822317253594081284811174502841 027019385211055596446229489549303 819644288109756659334461284756482 337867831652712019091456485669234 603486104543266482133936072602491 412737245870066063155881748815209 209628292540917153643678925903600 113305305488204665213841469519415 116094330572703657595919530921861 173819326117931051185480744623799 627495673518857527248912279381830 119491298336733624406566430860213 949463952247371907021798609437027 705392171762931767523846748184676 694051320005681271452635608277857 713427577896091736371787214684409 012249534301465495853710507922796 892589235420199561121290219608640 344181598136297747713099605187072 113499999983729780499510597317328 160963185950244594553469083026425 223082533446850352619311881710100 031378387528865875332083814206171 776691473035982534904287554687311 595628638823537875937519577818577 805321712268066130019278766111959 092164201989

এতো জানা থাকার পরও ছোটো খাটো অংক করার জন্যএখনো আমরা পাইএর মান সাধারণত ২২/৭ = ৩.১৪ হিসাব করি।
পাই এর সঠিক ভগ্নাংশ হচ্ছে ১০৪৩৪৮/৩৩২১৫। এর সঠিকতর মাত্রা ০.০০০০০০০১০৫৬ শতাংশ।
এক সময় মানুষ বৃত্তের ক্ষেত্রফলের সমান বর্গক্ষেত্র আঁকতে চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়, যা কখনোই নিখুঁতভাবে আঁকা সম্ভব নয়। এ চেষ্টাকে একটা রোগ বলে আখ্যায়িত করে এর নাম দেয় Morbus Cyclometucus.

পাই এর মান বের করা নিয়ে সবচেয়ে মজার কাহীনিটি এখন বলছি। আমেরিকার ইন্ডিয়ানা স্টেটস এর একজন ডাক্তার ই. জে. গুডউইন ১৮৯৭সালে হঠাৎ করেই ঘোষণা করলেন পাইয়ের মান চার। শুধু ঘোষণা করেই থামলেন না বরং মহাপণ্ডিত রাজনীতিবিদদের কি করে বুঝিয়ে ইন্ডিয়ানা স্টেটস এর পার্লামেন্টে বিল (সাল ১৮৯৭ইং, বিল নং ২৪৬) আকারে পাসও করিয়ে ফেললেন। রাজনীতিবিদরা পাই এর মান ৪, বিল পাস করিয়ে মহাখুশী। দেখ গণীতবিদ আমরাও গণীতকে কিছু দিতে পারি, এতোই আমাদের দেয়ার ক্ষমতা! এবার তারা ঠিক করলেন যখনই পৃথিবীতে কেউ পই এর মান ৪ ব্যবহার করবে তাকে অবশ্যই কিছু রয়ালিটি দিতে হবে। তারা একটু উদারাতা দেখালেন নিজেদের স্টেটস ইন্ডিয়ানাকে। এই স্টেটস এর পাঠ্যবইয়ে রয়ালিটি ছারাই পাই = ৪ ব্যবহার করার অনুমতি দেয়।

বিলটি ১৮৯৭ সালের ১২ ফেব্রুয়ারিতে আইন হিসাবে পাস করার কথা ছিলো, কিন্তু সরা পৃথিবীর গণিতবিদদের অট্ট হাসি তাদের নার্ভাস করে দিলো। তাই রাজনীতিবিদরা এই বিলটিকা আবার স্থগিত ঘৌষণা করে দিলো এবং এখনো এই বিলটি স্থগিতই রয়েছে। (আল্লাহ্ জানে আবার কবে আইন হিসেবে পাস করে দেবে। মনে রাখবেন তখন কিন্তু রয়ালিটি দিতে হবে, যে কবার পাই লিখবেন সে কবারই। তাই এখনই যত খুশি পাই পাই করে নেন, তখন পাই বললেই অন্য কেউ পাবে-আপনাকে দিতে হবে। )

শেষ করছি ছোট্ট একটি প্রশ্ন দিয়ে। আজ ১৪ই মার্চ বিশ্ব পাই দিবসে একজনের জন্ম দিন। আপনি তাকে চিনেন, কে সেই সর্ব পরিচিত ব্যাক্তি?



 সূত্রঃ প্রথম আলো, নিউরনে অনুরণন।

SSC Bangla 2nd Paper

English Grammer

English Grammer
শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ English 2nd Paper বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হলো

::::: English 2nd Paper :::::

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. ….
(প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত )
Skype id - wschoolbd মোবাইল নং 09602111125


XML Descriptive Questions

ওয়েব স্কুল বিডি : সুপ্রিয় শিক্ষার্থী বন্ধুরা, শুভেচ্ছা নিয়ো। আজ তোমাদের java এর XML খুঁটিনাটি নিয়ে আলোচনা করা হলো

1. What is XML?
XML is the Extensible Markup Language. It improves the functionality of the Web by letting you identify your information in a more accurate, flexible, and adaptable way.
It is extensible because it is not a fixed format like HTML (which is a single, predefined markup language). Instead, XML is actually a metalanguage a language for describing other languages which lets you design our own markup languages for limitless different types of documents. XML can do this because it's written in SGML, the international standard metalanguage for text document markup (ISO 8879).
http://www.webschoolbd.com
2. Why is XML such an important development?
It removes two constraints which were holding back Web developments:
1. dependence on a single, inflexible document type (HTML) which was being much abused for tasks it was never designed for;
2. the complexity of full SGML, whose syntax allows many powerful but hard-to-program options.
XML allows the flexible development of user-defined document types. It provides a robust, non-proprietary, persistent, and verifiable file format for the storage and transmission of text and data both on and off the Web; and it removes the more complex options of SGML, making it easier to program for.

3. Describe the differences between XML and HTML?
Differences Between XML and HTML
XML
► User definable tags
► Content driven
► End tags required for well formed documents
► Quotes required around attributes values
► Slash required in empty tags
HTML
► Defined set of tags designed for web display
► Format driven
► End tags not required
► Quotes not required
► Slash not required

4. What is an XML namespace?
An XML namespace is a collection of names that can be used as element or attribute names in an XML document. The namespace qualifies element names uniquely on the Web in order to avoid conflicts between elements with the same name.

5. What is DTD? 
A DTD (Document Type Definition) allows us to:
a. Define a specific set of tags with specific relationships to one another
b. Define default values for attributes
c. Define additional text and binary entities, along with their associated notations Indicate the starting (root) element

6. What is XML Schema?
The schema defines the elements that can appear within the document and the attributes that can be associated with an element.
It also defines the structure of the document: which elements are child elements of others, the sequence in which the child elements can appear, and the number of child elements.

7. What is document object model?
The Document Object Model (DOM) is an interface specification maintained by the W3C DOM Workgroup that defines an application independent mechanism to access, parse, or update XML data. In simple terms it is a hierarchical model that allows developers to manipulate XML documents easily Any developer that has worked extensively with XML should be able to discuss the concept and use of DOM objects freely.

8. What is a Parser?
Parser is a software program that recognizes the rules of XML In well-formed XML
a. Checks document to see if it follows the well-formedness rules in Valid XML
b. Checks an XML DTD to see if it follows the rules of XML, then Checks an XML document to see if it follows the rules of XML, and also adheres to the structure against its DTD

9. What is Well Formed XML Document?
A "Well Formed" XML document has correct XML syntax.
The syntax rules are:
• XML documents must have a root element
• XML elements must have a closing tag
• XML tags are case sensitive
• XML elements must be properly nested
• XML attribute values must be quoted

10What actually are PCDATA and CDATA?
PCDATA
Simply speaking, PCDATA stands for Parsed Character Data. That means the characters are to be parsed by the XML, XHTML, or HTML parser. (< will be changed to <,
will be taken to mean a paragraph tag, etc). Compare that with CDATA, where the characters are not to be parsed by the XML, XHTML, or HTML parser.
CDATA
The term CDATA, meaning character data, is used for distinct, but related purposes in the markup languages SGML and XML. The term indicates that a certain portion of the document is general character data, rather than non-character data or character data with a more specific, limited structure.

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. … প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (09602111125)

UML Descriptive question Chapter-06

Chapter-06    
Specifying Operations & Specifying Control

 1. What are the two main purpose of operation specification?
Ans.
a) They confirm the user’s view of the logical behavior of a model.
b) They also specify what the designers and programmers must product or meet the user’s requirements.

 2. Difference between algorithmic and non-algorithmic technique to operation specification. 
Ans. Algorithmic technique
1. An algorithm defines the step-by-step behavior of an operation.
2. An algorithm also specifies the sequence in which the steps are performed.
3. Generally do not prefer in object-oriented development.
4. Describe the internal logic. eg. Activity Diagram.
 Non-Algorithmic technique
1. A non-algorithmic approach defines only inputs and results.
2. If does not specifies the sequence.
3. Generally preferred in object-oriented because Non-algorithmic methods of operation specification emphasize encapsulation.
4. Do not describe. eg. Decision table.
http://www.webschoolbd.com/p/java.html

 3. What are the main component of OCL operation? 
Ans. The UML has also a formal language known as Object Constraint Language(OCL). which is intended mainly for specifying general constraints on a model. Most OCL statement consists of the following three components-
a) A context within which the expression is valid (for example, a specified class).
b) A property within the context to which the expression applies(for example and attribute of the specified class).
c) An operation that is applied to the property (for example a mathematical expression that tests the value of the attribute)

 4. Define Activity Diagram.
Ans. Activity Diagram:
It is a version of state chart diagram that focuses on a flow of activity driven by internal processing within an object rather than by events that are external to it. In an activity diagram most(or all) states are action states(also called activities) each of which represent the execution of an operation. Activity diagrams can be used to specify the logic or procedurally complex operations.

 Specifying Control 

 1. What do you mean by state chart? 
Ans. The state chart is a versatile technique and can be used within and Object-Oriented approach for other purpose than the modeling of object life cycles. A state chart must have at least one initial state.
2. Mention the important link between state-chart and iteration diagram. 
Ans. There is an important link between state chart and iteration diagrams. A model of state behavior in a state chart captures all the possible responses of a single object to all the use cases in which it is involved. By contrast a sequence or a collaboration diagram captures the responses of the entire object that are involved in a single use case.

 3. What are the main approaches for state-chart? 
Ans. The steps involved in the life cycle to state modeling are as follows-
a) Identify major system events.
b) Identify each class that is likely to behave a state dependent response to these events.
c) For each of these classes produce a first-cut state chart by considering the typical life cycle of an instance of the class.
d) Examine the state chart and elaborate to encompass more detailed event behavior.
e) Enhance the state chart to include alternative scenario us.
f) Review the state chart to ensure that is consistent with the use cases. In particular check that the constraints that the state chart implies are appropriate.
 g) Iterate through steps d, e & f until the state chart captures the necessary level of detail.
h) Ensure consistency with class diagram and interaction diagrams and other state charts.

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. … প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (09602111125)

UML Descriptive question Chapter-05

Chapter-05 
Requirements Capture & Requirements Analysis

 1. List the name of the fact finding techniques. 
Ans. There are 5 main fact finding techniques that are used by analyst to investigate requirements-
 a) Background reading 
b) Interviewing
c) Observation
d) Document Sampling
e) Questionnaires
http://www.webschoolbd.com/p/java.html

Advantage & disadvantage of fact finding technique:
a) Background reading:
(+) Background reading helps the analyst to get on understanding of the organization before meeting the people who work there
(-) written document often do not match the reality, they may be out of date or they may reflect the official policy on matter that are dealt with differently in practice

b) Interviewing:
(+) Personal contact allows the analyst to be responsive and adapt to what the user says. Because of this interviews produce high quality information.
(-) Interviews are time consuming and can be the most costly form of fact gathering.

c) Observation:
(+) Observation of people at work provide firsthand experience of the way that the current system operates.
(-) Observation requires a trained and skilled observer for it to be most effective.

 d) Document Sampling:
(+) Can be used to gather quantitative date such as the average number of lines on an invoice.
(-) If the system is going to change dramatically. existing documents may not reflect how it will be in future.

 e) Questionnaires :
(+) An economical way of gathering data from a large number of people.
(-) Good questionnaires are difficult to construct.

 2. What is use case? What is the purpose of use case? 
Ans. Use cases are descriptions of the functionality of the system from the users’ perspective. Use case diagrams are used to show the functionality that the system will provide and to show which users will communicate with the system in some way to use that functionality.

Purpose: Use cases are supported by behavior specifications there specify the behavior of each use case either using UML diagrams, such as collaboration diagrams or sequence diagrams or in text from as use case descriptions. Textual use case description provides a description of the interaction between the users of the system, termed actors and the high level functions within the system the use case.

 3. What is Stereotypes? Describe include & extend. 
Ans. Stereotype: A stereotype is a special use of a model element that is constrained to behave in a particular way Stereotypes can be show by using a keyword. Such as ‘extend’ or ‘include’ in matched quillements like <extend>. Stereotype can also be represented using special icon. The actor symbol in use case diagrams is a stereotyped icon- an actor is a stereotyped class and could also be shown as a class rectangle with the stereotype <actor> above the name of the actor. 

 <extend> is used when we wish to show that a use case provides additional functionality that way be required in another use case. 

 <include> applies when there is a sequence of behavior that is used frequently in a number of use cases and we want to avoid copying the same description of it into each use case in which it is used.

Requirements Analysis

4. What is a collaboration diagram?
Ans. A collaboration diagram shows an interaction between objects and the context of the interaction in terms of the link between the objects.

5. Define boundary class, entity class and control class?
Ans. Boundary class: Boundary class is a stereotyped class that provides an interface to users or other system.
Entity class: Entity class is a stereotyped class that represents objects in the business domain model.
Control class: Control class is a stereotyped class that controls the interaction between boundary classes and entity classes.

6. Distinguish between link and association.
Ans. Link: Link is a connection between objects and instance of an association.
Association: - Association is a logical connection usually between different classes although in some circumstances a class can have an association with itself. An association describes possible links between objects and may correspond either to logical relationships in the application domain or to message paths in software.

7. What is multiplicity and why can it be called a constraint?
Ans. Multiplicity: Multiplicity devotes the range of values of the members of objects that can be linked to a single object by a specific association. It is a constraint because it limits the behavior of a system. If a client can have only one staff contact it should be impossible to link a second.

8. How does a collaboration diagram differ from class diagram?
Ans. A collaboration diagram shows only those classes that collaborate to provide the functionality of a particular use cases (or operation); the links that are shown are those that are required for that purpose. a class diagram typically shows all the classes in a particular package and all the associations between them.  

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. … প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (09602111125)

UML Descriptive question Chapter-04

Chapter-04
Modeling Concepts

 1. What is the difference between model and diagram?
Ans.
Model: Like any map, models represent something also. Models are usually both abstract and visible. They are useful in several different ways, precisely because they differ from the things that they represent-
a) A model is quicker and easier to build.
b) A model can be used in simulations to learn more about the thing it represents.
c) A model can evolve as we learn more about a task or problem.
d) We can choose which details to represent in a model and which to ignore. It is an abstraction.
e) A model can represent real or imaginary things form any domain.

http://www.webschoolbd.com/p/java.html
Diagram: Diagrams are used to build models of system in the systems in the same way as architects use drawings and diagrams to model buildings. Diagrammatical models are used extensively by system analysts and designers in order to-
a) Communicate ideas
b) Generate new ideas and possibilities
c) Test ideas and make predictions
d) Understand structures and relationships A model provides a complete view of a system at a particular stage and form a particular perspective.

2. What are the basic elements of UML model diagram?
Ans. UML diagrams are made up of four elements-
a) Icons
b) Two dimensional symbols
c) Paths
d) Strings

UML diagrams are graphs composed of various kinds of shapes, known as nodes, joined together by lines, known as paths.

Different models present different views of the system. Booch et al (1999) suggest five views to be used with UML
1. The use case view
 2. The design view
3. The process view
4. The implementation view
5. The development view

 3. What is the UML notation for each of the following package, sub-system and model?
Ans.
http://www.webschoolbd.com/p/java.html

 Fig: UML notation for packages, sub-systems and models.

 4. Draw a simple Activity diagram.  
 Activity Diagram:

http://www.webschoolbd.com/p/java.html


Activity diagram can be used to model different aspects of a system. At a high level, they can be used to model business activates in an existing or potential system. Activity diagram can be used for the following purpose:
1) To model a task
2) To describe a system function that is represented by a use case.
3) In operation specifications, to describe the logic of an operation.
4) In USDP to model the activities that make up the life cycle.

5. Guard Condition :
Ans. Guard condition is a Boolean expression associated with a transition that is evaluated at the time the event fires. The transition only takes place if the condition is true. A guard condition is a function that may involve parameters of the triggering event and also attributes and links of the object that owns the state chart.  

অনলাইন এ ক্লাস করুন একদম ফ্রী. … প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ১০.৩০টা পর্যন্ত
Skype id - wschoolbd

বি.দ্র.: ওয়েব স্কুল বিডি থেকে বিদেশে পড়াশোনা সংক্রান্ত বিভিন্ন পরামর্শ প্রদান করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমাদের সাথে যোগাযোগ – (09602111125)